১৬ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১লা অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, বৃহস্পতিবার, রাত ১২:৪২

গাজী টায়ার কারখানার তার জালিয়াতি, কামরুজ্জামান রিমান্ডে

সংবাদচর্চা রিপোর্ট:

রূপগঞ্জ উপজেলার তারাব পৌরসভার খাদুন এলাকায় অবস্থিত গাজী অটো টায়ার কারখানা থেকে জালিয়াতি করে নিয়ে যাওয়া ৪৩ লাখ টাকার তামার তার উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় গ্রেপ্তারকৃত কামরুজ্জামান খানকে ২ দিনের রিমান্ডের আদেশ দিয়েছে আদালত। রবিবার সকালে নারায়ণগঞ্জের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মাহমুদুল মোহসীনের আদালত এ আদেশ দেন। এর আগে ৯ সেপ্টেম্বর রাতে মুন্সিগঞ্জ জেলার গজারিয়া থানার ভিটিকান্দি এলাকার এলএনডি ফ্যাক্টরী থেকে তামার তার (ক্যাবল) উদ্ধার করা হয়। এবং কামরুজ্জামান খাঁন, আরিফুর রহমান পিন্টু ও আলমগীর হোসেনকে গ্রেপ্তার করা হয়।

এ দিন নরসিংদী শিবপুর থানার দত্তেরগাঁও এলাকার আব্দুল হান্নান খাঁনের ছেলে কামরুজ্জামানের রিমান্ড মঞ্জুর হলেও গ্রেপ্তারকৃত বাকী দুই আসামীর রিমান্ড নামঞ্জুর করা হয়। এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন কোর্ট পুলিশের পরিদর্শক আসাদুজ্জামান। তিনি জানান, তদন্তের স্বার্থে ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করলে আদালত ২ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

গত ৩১ আগস্ট তারাব পৌরসভার খাদুন এলাকায় অবস্থিত গাজী অটো টায়ারের সহকারী বিক্রয় ব্যবস্থাপক কামরুজ্জামান খান ১৮০০ মিটার (৩৫২৩ কেজি) প্রায় ৪৩ লাখ টাকার তামার তার (ক্যাবল) প্রতিষ্ঠানের অন্যান্য কর্মকর্তাদের অগোচরে প্রতিষ্ঠানের প্যাডে লিখে কৌশলে ডেলিভারি দেওয়ার উদ্দেশ্যে গাজী অটো টায়ারের স্টোর কিপার জাফর আহমেদের স্বাক্ষর নকল করে জালিয়াতির মাধ্যমে গাজী রাবার প্লানটেশনের নামে ভাউচার করে তারগুলো গাজী অটো টায়ার থেকে বের করে নিয়ে যায়। মালামাল বের করে নিয়ে যাওয়ার পর থেকেই কামরুজ্জামান খাঁন পলাতক ছিলেন। পরে গত ৫ সেপ্টেম্বর এ ঘটনায় গাজী অটো টায়ারের স্টোর কিপার জাফর আহমেদ বাদী হয়ে কামরুজ্জামান খাঁনকে আসামী রূপগঞ্জ থানার একটি মামলা দায়ের করেন। পরে ৯ সেপ্টেম্বর রাতে রূপগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মুত্তালিবের নেতৃত্বে রূপগঞ্জ থানা পুলিশের একটি দল মুন্সিগঞ্জ জেলার গজারিয়ার থানার ভিটিকান্দির এলাকার এলএন্ডি ফ্যাক্টরী থেকে জালিয়াতি করে নিয়ে যাওয়া তার (ক্যাবল) গুলো উদ্ধার করেন। এ সময় পলাতক কামরুজ্জামন খাঁন ও আরিফুর রহমান পিন্টু ও আলমগীর হোসেনকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন মানিকগঞ্জ জেলার শিবালয় থানার মহাদেবপুর এলাকার আরিফুর রহমান পিন্টু ও নারায়ণগঞ্জ জেলার ফতুল্লা থানার চর নবীপুর এলাকার হাজ্বী মোহাম্মদের ছেলে আলমগীর হোসেন।

স্পন্সরেড আর্টিকেলঃ