১২ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৮শে অক্টোবর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, বুধবার, রাত ৮:৩৮

স্বামী-স্ত্রী মিলে অপহরণ ,৩দিন পর অপহৃত শিশু উদ্ধার

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি: বন্দর থানার উত্তর লক্ষণখোলা এলাকা হতে মোঃ ইমরান হোসেন @ বাবু (৩৬) এবং মোছাঃ সানজিদা আক্তার(২৪) নামক দুই অপহরণকারীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১১। গত ২৮ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় তাদের গ্রেফতার করা হয়। এসময় সিদ্ধিরগঞ্জ হতে অপহৃত ২ বছরের শিশুকে ৩দিন পর উদ্ধার করা হয়। সোমবার ( ২৯ সেপ্টেম্বর ) দুপুরে লেঃ কর্ণেল (অধিনায়ক) খন্দকার সাইফুল আলম স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

তিনি জানান, গত ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ তারিখে মোঃ মিজানুর রহমান (৩২) নামক এক ব্যক্তি র‌্যাব-১১, নারায়ণগঞ্জ বরাবর একটি অভিযোগ করেন যে, গত ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ খ্রিষ্টাব্দে কতিপয় অপহরণকারীরা সিদ্ধিরগঞ্জ থানাধীন মিজমিজি পাইনাদী এলাকায় তাদের ভাড়া বাড়ি হতে তার ২ বছর বয়সী শিশুপুত্রকে অপহরণ করে নিয়ে যায়। মোবাইল ফোনে অপহরণকারী তার শিশুপুত্রকে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দিয়ে তার কাছে মোটা অঙ্কের মুক্তিপণ দাবি করে। উক্ত অভিযোগের প্রেক্ষিতে র‌্যাব-১১ কর্তৃক গোয়েন্দা নজরদারী ও গোপন অনুসন্ধান শুরু করে। এরই ধারাবাহিকতায় সম্ভাব্য কয়েকটি স্থানে অভিযান চালিয়ে র‌্যাব-১১ এর একটি আভিযানিক দল সর্বশেষ গত ২৮ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় বন্দর থানাধীন উত্তর লক্ষণখোলা এলাকা হতে মোঃ ইমরান হোসেন @ বাবু (৩৬) এবং মোছাঃ সানজিদা আক্তার(২৪) নামক দুই অপহরণকারীকে গ্রেফতার করে। পরে গ্রেফতারকৃত আসামী মোঃ ইমরান হোসেন @ বাবুর বোনের ভাড়া বাসায় অভিযান চালিয়ে অপহৃত ভিকটিম শিশুটিকে উদ্ধার করা হয়। গ্রেফতারকৃত আসামী মোঃ ইমরান হোসেন @ বাবু নারায়ণগঞ্জ জেলার বন্দর থানার লক্ষণখোলা এলাকার মৃত মাজেদ হোসেনের ছেলে এবং সানজিদা আক্তার মোঃ ইমরান হোসেন @ বাবু’র স্ত্রী।

গ্রেফতারকৃত আসামীদ্বয়কে জিজ্ঞাসাবাদ ও প্রাথমিক অনুসন্ধানে জানা যায়, অপহৃত ভিকটিম শিশুটির পিতা মোঃ মিজানুর রহমান পেশায় একজন পিকআপ চালক। ভিকটিমের পরিবার ও অপহরণকারীরা প্রায় এক বছর ধরে সিদ্ধিরগঞ্জ থানাধীন মিজমিজি পাইনাদী এলাকায় পাশাপাশি ভাড়া বাসায় বসবাস করে আসছিলেন। পাশাপাশি বাসায় বসবাস করলেও ভিকটিমের পরিবার ও অপহরণকারীদের মধ্যে প্রতিবেশি হিসেবে কোন পরিচয় বা ঘনিষ্ঠতা ছিল না। ভিকটিমের পিতা মোঃ মিজানুর রহমান পিকআপ গাড়ী চালানোর উদ্দেশ্যে বাহিরে থাকা অবস্থায় তার স্ত্রী সাংসারিক কাজে ব্যস্ত থাকার সুযোগ কাজে লাগিয়ে অজ্ঞাতসারে অপহরণকারীরা স্বামী-স্ত্রী পরষ্পর যোগসাজশে মুক্তিপণ আদায়ের উদ্দেশ্যে কৌশলে গত ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ খ্রীষ্টাব্দে বিকাল ০৪.০০ ঘটিকায় শিশুটিকে অপহরণ করে নিয়ে যায় এবং নারায়ণগঞ্জ জেলার বন্দর থানাধীন উত্তর লক্ষণখোলা দালাল বাড়ী জামে মসজিদের পাশে অভিযুক্ত মোঃ ইমরান হোসেন @ বাবুর বোনের ভাড়া বাসায় জিম্মি করে রাখে। অপহরণকারীরা ভিকটিম শিশুটিকে নির্যাতন করে শিশুর মা-বাবাকে মোবাইল ফোনে কান্নার আওয়াজ শুনিয়ে মোটা অঙ্কের মুক্তিপণ দাবি করে। এরপর তার বোনের ভাড়া বাসায় অভিযান চালিয়ে অপহৃত ভিকটিম শিশুটিকে সুস্থ অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। উপস্থিত সাক্ষীদের সামনে আসামীদের জিজ্ঞাসাবাদে তারা ভিকটিম শিশুটিকে অপহরণ করে মুক্তিপণ আদায়ের চেষ্টা এবং আটকে রেখে শারিরীক নির্যাতন করার কথা স্বীকার করে। উপস্থিত সাক্ষীদের সামনে আসামীদের জিজ্ঞাসাবাদে তারা ভিকটিম শিশুটিকে অপহরণ করে মুক্তিপণ আদায়ের চেষ্টা এবং আটকে রেখে শারিরীক নির্যাতন করার কথা স্বীকার করে। গ্রেফতারকৃত আসামীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন।

স্পন্সরেড আর্টিকেলঃ