২রা আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৬ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, বুধবার, রাত ১০:৫৪

সোনারগাঁওয়ে যাত্রীবাহী বাস খাদে পড়ে আহত ১০

সংবাদচর্চা অনলাইনঃ

মহাসড়কে অনুমোদন বিহীন নাফ পরিবহন বেপরোয়া ভাবে চলাচলে একটি কভার্ড ভ্যানের ধাক্কায় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে অপর একটি যাত্রীবাহী বাস খাদে পরে। এসময় ওই বাসে থাকা ৩২ জন যাত্রীর মধ্যে কমপক্ষে ১০ জন আহত হয়েছেন।

সোমবার ২২শে ফেব্রুয়ারি দুপুর ১টার দিকে ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়কের বন্দরের কেওঢালা বাস স্ট্যান্ডে এ দূর্ঘটনা ঘটে।

মহাসড়কে বেপরোয়া ভাবে চালানোর অভিযোগে নাফ পরিবহনের একটি বাস ও কভার্ডভ্যানটি আটক করে কাঁচপুর হাইওয়ে থানা পুলিশ।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়কের কেওঢালা বাস স্ট্যান্ড দিয়ে সোনারগাঁও মোগরাপাড়া চৌরাস্তা-কাঁচপুর চলাচলরত একটি নাফ বাস হঠাৎ ইউটার্ন করছিল। এসময় দ্রুতগামী একটি কভার্ডভ্যান নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে লক্ষীপুর হতে ঢাকাগামী (ঢাকামেট্রো-জ-১৪-২৫১২)একটি লোকাল যাত্রীবাহী বাসের বাম পাশে কভার্ডভ্যানের ধাক্কা লেগে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পাশ্ববর্তী খাদে পড়ে যায়।

যাত্রীবাসী বাসের সামনে অংশ খাদে পড়ে গেলেও প্রাণ বাঁচাতে যাত্রীরা তারাহুরা করে বের হতে গিয়ে ভাঙ্গা কাঁচে কাটা পড়ে কমপক্ষে ১০ জন আহত হয়েছে। আহতদের এলাকাবাসী উদ্ধার করে স্থানীয়ভাবে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়।  

খবর পেয়ে কাঁচপুর হাইওয়ে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন। পরে বেপরোয়া ভাবে কভার্ডভ্যান চালানোর অভিযোগে কভার্ডভ্যান আটক করে নিয়ে যায়। এসসয় কভার্ডভ্যান চালক ও হেলপার পালিয়ে যায়।

কাঁচপুর হাইওয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ ইন্সপেক্টর মো. মনিরুজ্জামান জানান, বন্দরের কেওঢালা বাস স্ট্যান্ড দিয়ে সোনারগাঁও মোগরাপাড়া চৌরাস্তা-কাঁচপুর চলাচলরত একটি নাফ বাস হঠাৎ ইউটান করে। এসময় কভার্ডভ্যানটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে লক্ষীপুর হতে ঢাকাগামী একটি যাত্রীবাহী বাসের বাম পাশ দিয়ে ধাক্কা দিলে বাসটি পাশের খাদে পড়ে যায়। তবে বড় ধরনের কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি।

স্পন্সরেড আর্টিকেলঃ