৪ঠা আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৯শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, রবিবার, সন্ধ্যা ৭:৪৮

সংবাদ প্রকাশের পর ডেমরা-রূপগঞ্জ-কালীগঞ্জ সড়ক ব্যক্তি উদ্যোগে সংস্কার

নিজস্ব প্রতিবেদক:

অবশেষে এলজিইডির ডেমরা-রূপগঞ্জ-কালীগঞ্জ সড়কের ফজুরবাড়ি থেকে কাঞ্চন ব্রিজ পর্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ সড়ক ব্যক্তি উদ্যোগে করা সংস্কার কাজ ৩০ জুলাই শুক্রবার শেষ হয়েছে। রূপগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ ছালাউদ্দিন ভুঁইয়া ব্যক্তিগত অর্থায়নে গত সাত দিন ধরে সড়কের এ সংস্কার কাজ করেন। গত ৬ জুন দৈনিক সংবাদচর্চায় “ডেমরা-রূপগঞ্জ-কালীগঞ্জ সড়ক ঝুঁকিপূর্ণ’’ শিরোনামে সংবাদ প্রকাশের পর বিষয়টি কর্তৃপক্ষের নজরে আসে। কিন্তু সড়ক কর্তৃপক্ষ নানা জটিলতায় সংস্কার কাজ করতে পারেননি। পরে ব্যক্তি উদ্যোগে সড়কের সংস্কার কাজ করা হয়েছে।

সরেজমিনে গিয়ে জানা গেছে, চলাচলে ঝুঁকিপূর্ণ এ সড়ক গত ১৪ জুন রূপগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ শাহজাহান ভুঁইয়া, উপজেলা নির্বাহী অফিসার শাহ্ নুসরাত জাহান, উপজেলা প্রকৌশলী মোঃ জামাল উদ্দিন সড়ক পরিদর্শন করেন। পরে তারা জানান সড়ক নির্মাণে টেন্ডার হয়েছে। এখন সংস্কার করা যাচ্ছে না। শিগগিরই সড়ক পুঃননির্মাণের কাজ করা হবে।
এদিকে সড়কের হারিন্দা এলাকায় জলাবদ্ধতা ও গর্তের সৃষ্টি হওয়ায় গত ২০ জুন থেকে সড়কে রিক্সা, ভ্যান, অটোরিক্সা, সাইকেল, মটরসাইকেল সহ হালকা যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। এ সময় এলাকাবাসী বহু আবেদন নিবেদন করেছেন। কিন্তু কোন ফল হয়নি। পরে বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী বীর প্রতীকের নির্দেশে রূপগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ ছালাউদ্দিন ভুঁইয়া সড়কের সংস্কার কাজ করে প্রশংসিত হয়েছেন। ড্রাম ট্রাকে করে পুরোনো সড়কের ভাঙ্গা পরিত্যক্ত পিচ, ইট, সুরকি ও বালু দিয়ে ভ্যাকু, পেলুডার, চেইন ডোজার, বুলডোজার ও রোলার দিয়ে সংস্কার কাজটি করা হয়েছে। তাতে ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ ছালাউদ্দিন ভুঁইয়া এলাকাবাসীর কাছে প্রশংসিত হয়েছেন।

উল্লেখ ১৮ ফুট প্রস্থে ডেমরা-রূপগঞ্জ-কালীগঞ্জ সড়কের ফজুরবাড়ি থেকে কাঞ্চন ব্রিজ পর্যন্ত নির্মাণে টেন্ডার হয়েছে। পরে ১৮ ফুট প্রস্থের এ সড়ক ২৪ ফুটে উন্নীত হওয়ায় পূঃন বরাদ্দ ও টেন্ডার নিয়ে সড়ক নির্মাণে দেখা দেয় জটিলতা। সে কারণে সড়ক নির্মাণ কাজ শুরু করতে বিলম্ব হচ্ছে। এমনিভাবে গত দুই বছর ধরে অনুপযোগী এ সড়কে ঝুঁকি নিয়ে মানুষ ও যানবাহন চলাচল করে আসছে।

স্পন্সরেড আর্টিকেলঃ