আজ বুধবার, ১৫ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২৯শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

শিশুদের সাথে ডিসি-মন্ত্রীপুত্রের ইফতার

নিজস্ব প্রতিবেদক

পবিত্র মাহে রমজান উপলক্ষ্যে আশ্রয়কেন্দ্রের শিশুদের সাথে ইফতার করেছেন জেলা প্রশাসক মো. মঞ্জুরুল হাফিজ। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে নগরীর চৌধুরীবাড়ীস্থ গোাদনাইল সরকারি আশ্রয়কেন্দ্রে (ভবঘুরে) এমন ব্যতিক্রমি ইফতার ও দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়। এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ-(রূপগঞ্জ) আসনের সংসদ সদস্য ,বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী বীর প্রতীকের জ্যেষ্ঠপুত্র ও বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের পরিচালক গাজী গোলাম মর্তুজা পাপ্পা।

কয়েক বছর ধরে আশ্রয়কেন্দ্রে অবস্থান করা শতাধিক শিশুদের সার্বিক খোঁজ খবর নেন জেলা প্রশাসক। এ সময় শিশুররা জেলা প্রশাসককে কাছে পেয়ে আশ্রয়কেন্দ্রের বিভিন্ন অনিয়ম ও নির্যাতনের কথা জানান। বেশ কয়েকজন শিশু অভিযোগ করে সেখানে নিয়জিত ওমর ফারুক নামের একজন নিরাপত্তা প্রহরী শিশুদের বিভিন্ন সময় নির্যাতন (মারধর) করে আসছে। এমন অভিযোগের বিষয়টি জানার সাথে সাথে নিরাপত্তা প্রহরী ওমর ফারুককে সেখানে অন্যত্র বদলী করার আদেশ দেনজ জেলা প্রশাসক মঞ্জুরুল হাফিজ।

জেলা প্রশাসক আরো বলেন, এখন থেকে তিনি নিয়মিত এই আশ্রয়কেন্দ্রের তদারকি করবেন এবং যে সকল শিশুরা বাড়ী ফিরতে চায় তাদের ও তাদের পরিবারের বিষয়ে খোঁজখবর নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
অপর দিকে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের পরিচালক গাজী গোলাম মর্তুজা পাপ্পা শিশুদের বিনোদন ও খেলাধুলার বিষয়ে বিশেষ উপকরণ (ক্রীয়া সামগ্রী) বিতরণের ঘোষনা করেন।

ইফতার ও দোয়া মাহফিলে আরো উপস্থিত ছিলেন, জেল প্রশাসনের সহকারী কমিশনার ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট (এনডিসি) এসএম রাসেল ইসলাম নূর, তারাব পৌরসভার কাউন্সিলর রফিকুল ইসলাম মনির , দৈনিক সংবাদচর্চা পত্রিকার প্রকাশক ও সম্পাদক মুন্না খানসহ প্রমুখ।
উল্লেখ্য, দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে অপরাধ সংঘটনের অভিযোগে আদালতের নির্দেশে শিশুদের এনে কাউন্সিল করা হয় নারায়ণগঞ্জের এই আশ্রয়কেন্দ্রে। সংশ্লিষ্টদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, আশ্রয়কেন্দ্রে এমন অনেক শিশু রয়েছে যারা এক বছরের অধিক সময় ধরে অবস্থান করছে।

স্পন্সরেড আর্টিকেলঃ