১৩ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২৮শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, সোমবার, সকাল ৬:০৬

লুকিয়ে স্বামীর রক্তাক্ত লাশ দাফনের চেষ্টা, স্ত্রী ও ২ সন্তান আটক

সংবাদচর্চা রিপোর্টঃ

নারায়নগঞ্জের ফতুল্লার দাপা ইদ্রাকপুরে জামাল নামে এক প্রবাসীর রক্তাক্ত লাশ দাফনের চেষ্টা করছিল তার স্ত্রী শারমীন আক্তার। এ ঘটনায় নিহতের ভাই আব্দুল মান্নান থানায় অভিযোগ করলে বুধবার ফতুল্লা থানা পুলিশ লাশ উদ্ধার করেছে। সেই সাথে নিহতের স্ত্রী, ১ ছেলে ও মেয়েসহ ৩ জনকে আটক করা হয়।

নিহত জামাল সদর উপজেলার দাপা ইদ্রাকপুর এলাকার মৃত মোঃ আলীর ছেলে। সে দীর্ঘদিন সৌদি আরবে থাকতেন।  

নিহতের পরিবার জানায়, প্রবাসী জামাল মঙ্গলবার রাতে খাবার খেয়ে রাত ১১টার দিকে ঘুমিয়ে পরে। পরে রাত আড়াইটার দিকে নিহতের মেয়ের ঘুম ভেঙ্গে গেলে সে ডাইনিং রুমের লাইট জ্বলতে দেখে নেভাতে গিয়ে দেখে তার বাবার মরদেহ বাথরুমে পরে আছে। পরে পরিবারের অন্যান্য সদস্য ও পার্শ্ববর্তী ভাড়াটিয়ারা আসলে প্রবাসী জামালের মৃত্যু নিশ্চিত করে সকলের সিদ্বান্ত অনুযায়ী লাশ দাফন করার প্রক্রিয়া করছিল।

ফতুল্লা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আসলাম হোসেন জানান, নিহত জামাল ও তার স্ত্রী শারমীনের মধ্যে দীর্ঘদিন পরকীয়া নিয়ে উভয়ের মধ্যে সন্দেহ প্রবণতা ছিল। নিহতের ভাইয়ের অভিযোগের ভিত্তিতে শারমীন আক্তার ও দুই সন্তানকে আমরা আটক করেছি। তিনি আরও জানান, প্রাথমিকভাবে ধারণা করছি এটি একটি পরিকল্পিত হত্যাকান্ড। নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে বলে জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।

স্পন্সরেড আর্টিকেলঃ