রূপগঞ্জে এমপি গাজীর জনসভা জনসমুদ্রে পরিণত

25822
রূপগঞ্জে এমপি গাজীর

রূপগঞ্জে এমপি গাজীর

নবকুমার:

একাদশ জাতীয় নির্বাচনে আওয়ামী লীগের চূড়ান্ত প্রার্থী তালিকা প্রকাশের পূর্বে রূপগঞ্জে আবারো নিজের শক্ত অবস্থানের জানান দিয়েছেন নারায়ণগঞ্জ -১ আসনের সংসদ সদস্য বিশিষ্ট শিল্পপতি গোলাম দস্তগীর গাজী বীর প্রতীক।

বৃহষ্পতিবার বিকালে রূপগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের  সকল সহযোগী সংগঠনের উদ্যোগে মুড়াপাড়া কলেজ মাঠে জনসভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। জনসভায় হাজার হাজার মানুষের ঢল নামে। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন গোলাম দস্তগীর গাজী বীর প্রতীক।  দেখা গেছে মুড়াপাড়া কলেজ মাঠে তিল ঠাই এর জায়গা নেই শুধু লোক আর লোক । গোটা এলাকা  নৌকা আর গাজীর শ্লোগানে মুখোরিত করে তোলে আওয়ামী লীগ ,ছাত্রলীগ ,যুব লীগসহ বিভিন্ন সংগঠনের নেতা কর্মীরা।

জনসভায় যোগ দিয়েছেন মুক্তিযোদ্ধা, সুশীল সমাজের প্রতিনিধিরা ,কৃষক, শ্রমিক, তাতী ,মহিলা পরিষদের নেতাকর্মীসহ  রূপগঞ্জের সর্বস্তরের মানুষ। জনসভায় আগত আওয়ামীলীগ নেতা হাবিবুর রহমান হাবিব জানান,  রূপগঞ্জে আগামী নির্বাচনে  গোলাম দস্তগীর বিকল্প নেই। আমরা রূপগঞ্জ বাসি বেধেছি জোট , গাজী সাহেব কে দেব ভোট। এখানে কোন সন্ত্রাসীর স্থান হবে না। তিনি আরো জানান আমরা গাজী সাহেব কে ভালোবাসি বলেই আজ এখানে এসেছি।

বিএনপি জামায়াতের দুশাসনের কথা উল্লেখ করে গোলাম দস্তগীর গাজী বলেন, খালেদার পুলিশ বাহিনী ছিলো দানবীয়। আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের মাঠে নামতে দেয় নাই। ওরা কোন উন্নয়ন করে নাই। হাওয়া ভবন খুলে তারা নিজেদের পকেট ভারী করছে।

ওয়ান ইলেভেনের সমালোচনা করে তিনি বলেন, অনেক বেইমান শেখ হাসিনাকে মাইনাস করতে চেয়েছিলো আজ তারাই আওয়ামী লীগের মনোনয়ন চায়। আন্দোলনের সময় ওদের মাঠে পাওয়া যায় নাই।

সেনাবাহিনীর সমালোচনা করে গোলাম দস্তগীর গাজী বলেন,ওয়ান ইলেভেনের সেনিবাহিনী আমাকে বলেছিলো শেখ হাসিনার নামে দুর্নীতির মামলা দিতে, আমি মামলা দেই নাই। সে দিন সেনাবাহিনী কে বলেছিলাম আমাকে মেরে ফেলুন, আমি একজন মুক্তিযোদ্ধা আমি বঙ্গবন্ধুর সৈনিক আমি শেখ হাসিনার নামে মামলা দিতে  পারব না।

তিনি বলেন, রূপগঞ্জে একটি চক্র আমার নামে মিথ্যাচার করছে। ওরা বিএনপির দুশাসনের কথা জনগণকে বলে না। কেউ যদি আমার নামে দুর্নীতির প্রমান দিতে পারে আমি রাজনীতি ছেড়ে দেব।

তিনি আরো বলেন, একটা সময় রূপগঞ্জ আওয়ামী লীগের পোস্টার লাগানো যেত না। আমি রূপগঞ্জে আসার পর  এখন সব জাগায় আওয়ামী লীগের পোস্টার। এখন যারা মনোনয়ন চান তারা ২০০১-২০০৭ সাল পর্যন্ত কোথায় ছিলেন? তখন ত তাদের মাঠে পাই নাই।

দেশের চলমান উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে রূপগঞ্জ বাসির কাছে নৌকা ভোট দেয়ার আহবান জানান গোলাম দস্তগীর গাজী বীর প্রতীক।

রূপগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি তোফাজ্জল হোসেন মোল্লার সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন রূপগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের  সহ-সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার শেখ সাইফুল ইসলাম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মফিজ উদ্দিন আহমেদ, প্রচার সম্পাদক মানজারী আলম টুটুল,তারাব পৌরসভার মেয়র হাছিনা গাজী, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সৈয়দা ফেরদৌসী আলম নীলা, জেলা পরিষদের সদস্য  শীলা রাণী পাল,তারাব পৌরসভা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি হাজি মোফাজ্জল হোসেন ভুঁইয়া, ভোলাব ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ আবুল হোসেন খান, মুড়াপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মো. রফিকুল ইসলাম, ভোলাব ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো.হাসান আশকারী, আওয়ামী লীগ নেতা মান্নান মুন্সি, আজমত আলী, মতি আকন্দ,  মুড়াপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান তোফায়েল আহমেদ আলমাছ, ভূলতা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার আরিফুল হক, রূপগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের সভাপতি কামরুল হাসান তুহিন, সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান শাহিন, সহ-সভাপতি খালেদ,রফিকুল ইসলাম মনির, সাংগঠনিক সম্পাদক রফিকুল ইসলাম, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ স্বপন, ত্রাণ বিষয়ক সম্পাদক বাচ্চু মিয়া,  উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি মাহবুবুর রহমান মেহের, সাধারণ সম্পাদক নাঈম ভুঁইয়া, ভিপি সোহেল, উপজেলা যুব মহিলা লীগের সভাপতি ফেরদৌসী আক্তার রিয়া, সাধারণ সম্পাদক সেলিনা আক্তার রিতা, রূপগঞ্জ উপজেলা শ্রমিকলীগের সভাপতি হাজী মোহাম্মদ বেলায়েত হোসেন , তারাব পৌর যুবলীগের সভাপতি হাজী মোশারফ হোসেন, কাউন্সিলর আতিক,তারাব আঞ্চলিক শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ আলীসহ রূপগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন জনপ্রতিনিধিরা ।

For Advertisement: 01921400867/ 01981617415

সংবাদচর্চায় প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, ছবি, ভিডিও, তথ্য কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।