আজ বুধবার, ১৩ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২৮শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

রুমি হাসি পর মৌসুমি, সাজেদা ও সোলাইম গ্রেপ্তার

৪ লাখ টাকা মূল্যের হেরোইনসহ দুই জন নারী ও একজন পুরুষ মাদক বিক্রেতাকে গ্রেপ্তার করেছে ফতুল্লা পুলিশের একটি দল। মঙ্গলবার দিবাগত রাত সাড়ে ৪টার দিকে চাঁনমারী বস্তির জাহাঙ্গীরের বাড়ীর সামনে হেরোইন বিক্রির সময় সোলাইমনা, মোসা. মৌসুমি ও মোসা. সাজেদা বেগম নামের তিনজনে গ্রেপ্তার করা হয়।

এ সময় একজন নারী পুলিশ সদস্য মাদক বিক্রেতা মৌসুমির দেহ তল্লাশী করে দেড় লক্ষ টাকা মূল্যের ১’শ ৫০ গ্রাম হেরোইন, সাজেদার দেহ তল্লাশী করে একই পরিমান হেরোইন ও পুরুষ মাদক বিক্রেতার দেহ তল্লাশী করে ১ লক্ষ টাকা মূলের ১’শ পুড়িয়া হেরোইন উদ্ধার করেছে পুলিশ।

এই ঘটনায় ফতুল্লা পুলিশের উপ পরিদর্শক (এসআই) মো. ইমানুর হোসেন বাদী হয়ে ধৃত মাদক বিক্রেতাদের বিরুদ্ধে মাদক আইনে একটি মামলা দায়ের করেছেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সেই থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মো. তারিকুল ইসলাম।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন, বন্দর উপজেলার বাড়িপাড়া গ্রামের সালাউদ্দিনের ছেলে সোলাইমান (২৪), সোলাইমানের স্ত্রী মোসা. মৌসুমি ও জামালপুর সরিষাবাড়ী গ্রামের হাসান মিয়া মেয়ে ও আলাউদ্দিনের স্ত্রী মোসা. সাজেদা বেগম (৪৩)। পুলিশ জানিয়েছে, আটককতদের বিরুদ্ধে থানায় একাধিক মামলা আছে।

মামলায় বলা হয়, মঙ্গলবার ভোর সাড়ে চারটার দিকে ফতুল্লা মডেল থানার উপপরিদর্শক ইমানুর সঙ্গীয় ফোর্স সহ ফতুল্লা থানার চানমারীস্থ জাহাঙ্গীরের বাড়ীর সামনের রাস্তায় অভিযান চালিয়ে মৌসুমী, তার স্বামী সোলেয়মান ও সাজেদা বেগম কে গ্রেফতার করে। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে যায় মাদক চালানের মূল হোতা মাদক সম্রাজ্ঞী হাসি ওরফে বুচি ও তার স্বামী আজিজুর ওরফে আইজ্জা।

এ সময় পুলিশ গ্রেফতারকৃতদের নিকট থেকে ৪০ গ্রাম(৪০০ পুরিয়া) হেরোইন উদ্ধার করে। ফতুল্লা মডেল থানার উপপরিদর্শক ইমানুর জানায়,গ্রেফতারকৃদের মধ্যে মৌসমী হলো মাদক সম্রাজ্ঞী হাসি ওরফে বুচির হিসাব রক্ষক।

(সংবাদচর্চা/১৪জুন/এমএল)

স্পন্সরেড আর্টিকেলঃ