আজ রবিবার, ৬ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২১শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

ভয় হয় ঘর কাটা ইদুরকে :পাপ্পা গাজী

নিজস্ব প্রতিবেদক:

বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী বীর প্রতীকের জ্যেষ্ঠপুত্র ও বিসিবির পরিচালক গাজী গোলাম মর্তুজা পাপ্পা বলেছেন, এখন শেখ হাসিনার সরকার। বীর মুক্তিযোদ্ধারা প্রতিদিন সম্মান পায়। জীবিত প্রত্যেকটা বীর মুক্তিযোদ্ধাকে আমরা সম্মান করব। উনারা আমাদের মুক্তিযুদ্ধের সাক্ষী। তাদের কাছ থেকে আমরা মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস জানবো। বিএনপি যখন ক্ষমতায় ছিলো বাংলার ইতিহাস থেকে বঙ্গবন্ধুর নাম বাদ দেওয়া হয়েছে। ইতিহাস বিকৃতি করা যাদের ধর্ম তারাই বার বার চ্যালেঞ্জ করে। অনেকে আছে ২৬শে মার্চ আর ১৬ ই ডিসেম্বরের মধ্যে পার্থক্য কি জানেন না।

শনিবার (২৬ মার্চ) রূপগঞ্জে জনতা উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে স্বাধীনতা দিবস ২০২২ উদযাপন উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভা ও বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তরুণ শিল্প উদ্যোক্তা গাজী গোলাম মর্তুজা পাপ্পা এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, স্বাধীনতাকে আমাদের রক্ষা করতে হবে। আমরা যদি স্বাধীনতাকে রক্ষা না করি তাহলে একদিন স্বাধীনতা আমাদেরকে ছেড়ে চলে যাবে। তরুণ প্রজন্ম কে মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস জানতে। বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধের ঘোষণা দিয়েছেন। তার নেতৃত্বে এদেশ স্বাধীন হয়েছে।

মন্ত্রীপুত্র বলেন , আমি বিএনপি জামায়াতকে ভয় পাই না, আমি ভয় পাই ঘরের মধ্যে থাকা ঘরকাটা ইদুরকে । যারা স্বাধীনতার কথা বলে স্বাধীনতা খর্ব করে। আজকে আমার দলকে বিভক্ত করার জন্য দাউদপুরে অনুষ্ঠান হচ্ছে।

রূপগঞ্জবাসীর উদ্দেশে তিনি বলেন, আপনারা সৌভাগ্যবান, আপনাদের এমপি গোলাম দস্তগীর গাজী একজন খেতাব প্রাপ্ত বীর মুক্তিযোদ্ধা। জননেত্রী শেখ হাসিনা তাকে স্বাধীনতা পুরস্কার দিয়েছেন। ২৬ শে মার্চ একটা মহৎ দিন। এই দিনেও বিভক্তির রাজনীতি শুরু হয়েছে। জাতীয় সংগীতের মাধ্যমে আমাদের অনুষ্ঠান শুরু হয়েছে সকালে। আমরা উন্নয়নে বিশ^াসী। আমরা স্বাধীনতায় বিশ^াসী। আমরা জননেত্রী শেখ হাসিনাকে বিশ^াস করি। আমরা একত্রিত আছি। আমাদের উদ্দেশ্য একটাই, জননেত্রী শেখ হাসিনাকে আরেকবার প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত করবো।

তিনি আরও বলেন , কিছু মানুষ আছে যারা সুযোগ সন্ধানী। এরা শুধু অপরাধ করে। এই সুযোগ সন্ধানী লোক থেকে আমরা নিরাপদে থাকবো।

এসময় রূপগঞ্জ উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সৈয়দা ফেরদৌসী আলম নীলা, ভাইস চেয়ারম্যান সোহেল আহমেদ , রূপগঞ্জ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ছালাউদ্দিন ভুঁইয়া, কাঞ্চন পৌরসভা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম রসুল কলি, রূপগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি তাবিবুল কাদির তমাল, রূপগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান শাহিন, আওয়ামীলীগ নেতা ওবায়দুল মজিদ জুয়েল মাষ্টার, দ্বীন মোহাম্মদ দিলু, আজমত আলী, মতিউর রহমান আকন্দ, লাকি আক্তার, রূপগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ইমন হাসান খোকন, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা মাছুম চৌধুরী অপু, রূপগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ফয়সাল সিকদার, সাধারণ সম্পাদক শেখ ফরিদ ভুঁইয়া মাছুম, রূপগঞ্জ ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি আব্দুল আজিজ, সাধারণ সম্পাদক আরিফ খান জয়, রূপগঞ্জ উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি এম.এ মোমেন। পরে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের হাতে নগদ অর্থ তুলে দেন অতিথিবৃন্দ।

স্পন্সরেড আর্টিকেলঃ