২৭শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১১ই আগস্ট, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, মঙ্গলবার, সকাল ৬:৪১
বিজ্ঞাপন

ভোক্তাঅধিকারে অভিযোগ করে পেলেন ২৫ হাজার টাকা

নিজস্ব প্রতিবেদক:

নগরীর মিনাবাজার মার্কেটে স্বর্ণের ওজনে কমদেয়ায় প্রতারনার অভিযোগে তারিক জুয়েলার্সকে ১ লাখ টাকা জরিমানা করেছে নারায়ণগঞ্জ ভোক্তাঅধিকার দপ্তর শাখা। স্বর্ণ বিক্রেতা দোকানদার এক ক্রেতাকে ২২ ক্যারেটের স্থলে ১৯.১ ক্যারেট দিয়ে দেন। ক্রেতার অভিযোগের ভিত্তিতে সত্যতা পেয়ে এ জরিমানা করা হয় বলে জানান ভোক্তাঅধিকার কর্মককর্তা।

বৃহস্পতিবার (১৬ জুলাই) দুপুরে নারায়ণগঞ্জ জাতীয় ভোক্তাঅধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক সেলিম জামানের নেতৃত্বে এ অভিযান পরিচালিত হয়।

জেলা ভোক্তাঅধিকার সহকারী পরিচালক সেলিম বলেন, আলি আজম রোকন নামের এক ভোক্তা নিউ আল তারিক জুয়েলার্স থেকে ২২ ক্যারেট স্বর্ণের গহনা কিনেন। ওজনে কম সন্দেহ হওয়ায় তিনি আমাদের কাছে ওই স্বর্ণের দোকানের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন। আমরা মিনাবজার এলাকায় ওই প্রতিষ্ঠানে গিয়ে স্বর্ণের ওজন ২২ ক্যারেটের স্থলে ১৯.১ ক্যারেট পাই। অভিযোগের বিষয়টি প্রমানিত হওয়ার পরে তারিক জুয়েলার্সকে ভোক্তাঅধিকার সংরক্ষণ আইন, ২০০৯ এর ৪৫ ও ৪৮ ধারা মোতাবেক ১ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়। একই সাথে ভোক্তার গহনা কেনা বাবদ ২ লাখ ৫৫ হাজার টাকা ফেরত দেয়ার নির্দেশ দেয়া হয়। ভোক্তা অধিকার আইন অনুযায়ী আদায়কৃত জরিমানার ২৫ শতাংশ অভিযোগকারীকে নগদ প্রদান করা হয়। যার পরিমানে ২৫ হাজার টাকা দেয়া হয়।

উল্লেখ্য, স্বণের্র মান কিংবা বিশুদ্ধতা পরিমাপ করতে একক হিসেবে ক্যারেট ব্যবহার করা হয়। তৈরি গহনার মধ্যে ২২ ক্যারেটে খাদ বা ভেজাল থাকবে ১ আনা ২ রতি। আর ১৯.১ ক্যারেটে খাদ বা ভেজাল থাকে ৩ আনা দেড় রতি। অভিযানে সহযোগিতা করেন স্বর্ণ দোকান মালিক সমিতির সভাপতি, জেলা চেম্বার অব কমাসের্র প্রতিনিধি এবং জেলা পুলিশের সদস্যবৃন্দ।