Tuesday , September 18 2018

বঙ্গবন্ধুর হত্যার খবর তৎকালীন সেনাপ্রধান উপপ্রধান জানতেন : অধ্যাপক আবু সাইয়িদ

বঙ্গবন্ধুর হত্যার খবর তৎকালীন

নবকুমার

বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৩ তম শাহাদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষে জাতীয় প্রেস ক্লাবে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ১৪ আগস্ট মঙ্গলবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সভাপতি সফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বঙ্গবন্ধুর উপর ডক্টরেট ডিগ্রী অর্জন কারী সাবেক তথ্য প্রতিমন্ত্রী অধ্যাপক ড. আবু সাইয়িদ।

আলোচনা সভায় অধ্যাপক আবু সাইয়িদ বলেন,বাংলাদেশের মহান স্বাধীনতাযুদ্ধের বিরোধীরাই বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করেছে। বঙ্গবন্ধুর হত্যাকান্ডের সাথে রাজনৈতিক ব্যক্তি সাবেক আমলা ব্যবসায়ী জড়িত। গুটি কয়েক বিপদগামী সেনা সদস্য বঙ্গবন্ধু হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত এটা মিথ্যা কথা। বঙ্গবন্ধুকে হত্যার কথা তৎকালীন সেনাবাহিনীর প্রধান এ কে এম সফিউল্লাহ উপপ্রধান জিয়াউর রহমানসহ কম বেশি সকল সদস্য জানতেন। তারা দেশ প্রেমের পরিচয় দিলে বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করতে পারত না। খুনিরা জানত বঙ্গবন্ধু জীবিত থাকলে বাংলাদেশকে পাকিস্তান বানানো যাবে না। খুনি চক্র বাংলাদেশ কে পাকিস্তানের সাথে এক করতে চেয়েছিলো। জিয়াউর রহমান সংবিধান পরিবর্তন করে। জাতির পিতার হত্যাকান্ডের বিচারের পথ বন্ধ করতে ইনডেমনিটি বিল পাস করে। চলে ইতিহাস থেকে বঙ্গবন্ধুর নাম মুছে ফেলার ষড়যন্ত্র।

আবেগ আপ্লুত কন্ঠে অধ্যাপক আবু সাইয়িদ বলেন,ব্যক্তি মুজিব আজ আমাদের মাঝে নেই, আছে তার স্বপ্ন আদর্শ। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন তার কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাস্তবায়নের জন্য নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছে। দুর্নীতি শোষণ মুক্ত সোনার বাংলা প্রতিষ্ঠা হলেই বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়ন হবে।

তিনি আ.লীগের নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেন, বঙ্গবন্ধুর আদর্শ তরুণ প্রজন্মের কাছে তুলে ধরতে হবে। বিএনপি জামায়াতের সকল প্রকার ষড়যন্ত্র রূখে দিতে হবে।

আলোচনা সভায় আওয়ামীলীগ ছাত্রলীগ সাংবাদিকসহ বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন।

প্রতি মুহুর্তের খবর পেতে আমাদের ফেসবুক পেজে লাইক দিন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *