২রা আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৬ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, বুধবার, রাত ১১:৩৪

প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়ে ৫০ শতাংশ টিউশন ফি কমানোর দাবি

সংবাদচর্চা অনলাইন:

ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন নারায়ণগঞ্জের সভাপতি শিব্বির আহমাদ বলেন, করোনা পরবর্তী প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়সমূহের টিউশন ফি ৫০% অবশ্যই কমাতে হবে। শিক্ষা আমাদের মৌলিক অধিকার, একে বর্তমানে বাণিজ্যিক প্রকল্পে পরিণত করা হয়েছে। বর্তমানে প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে অনলাইনে ক্লাস করানো হয়।

বৃহস্প‌তিবার ৭ই জানুয়া‌রি সকাল ১০টায় সদর উপজেলার শিবু মার্কেটের আইএসসিএ মিলনায়তনে ইসলামী থানা প্রতিনিধি সভায় তিনি এ মন্তব্য করেন । 

শিব্বির আহমাদের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মাদ সারোয়ার হোসেনের সঞ্চালনায় এ সভা অনু‌ষ্ঠিত হয়।

শিব্বির আহমাদ বলেন, মানুষের মৌলিক মানবিক চাহিদা পূরণের অন্য সব প্রতিষ্ঠান সচল থাকলেও, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো এখনো বন্ধ রয়েছে। করোনা আমাদের শিক্ষা ব্যবস্থাকে লণ্ডভণ্ড করে দিয়েছে। প্রায় এক বছর হতে চললো শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে। চলতি শিক্ষাবর্ষে কোন পরীক্ষা নেওয়া হয়নি। গুরুত্বপূর্ণ বেশ কয়েকটি পাবলিক পরীক্ষাও বাতিল করা হয়েছে। ‘অটোপাস’ নামীয় অক্টোপাসের কবলে এখন আমাদের শিক্ষাব্যবস্থা। পালা করে ‘স্কুলবন্ধ ঘোষণা’র খবরটি ছাড়া কেউ কিছুই জানে না।

তিনি বলেন, অথচ রাষ্ট্রের আর সব প্রতিষ্ঠান কবেই খুলে দেওয়া হয়েছে। করোনার মধ্যেও সবকিছু সচল এবং স্বাভাবিক চলছে। কোন কিছুতেই কারো সমস্যা হচ্ছে না। সম্ভাব্য সব সমস্যা কেবল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে!

‘স্বাস্থ্যবিধি’ মেনে নতুন কোন পদ্ধতি অনুসরণ করে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়া হোক। ইতিমধ্যে আমাদের শিক্ষার অনেক ক্ষতি হয়ে গেছে। অভাবনীয় এই ক্ষতি রাষ্ট্র কত দিনে পুষিয়ে নিতে পারবে, সেটা এক বিরাট প্রশ্ন?

শিব্বির আহমাদ আরও বলেন, করোনা পরবর্তী প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়সমূহের টিউশন ফি ৫০% অবশ্যই কমাতে হবে। শিক্ষা আমাদের মৌলিক অধিকার, একে বর্তমানে বাণিজ্যিক প্রকল্পে পরিণত করা হয়েছে। বর্তমানে প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে অনলাইনে ক্লাস করানো হয়।

সুতরাং ল্যাব, বিদ্যুৎ, পানি, লাইব্রেরী, স্টুডেন্ট এক্টিভিটি ফি ইত্যাদি লাগবে কেন? টিউশন ফির সাথে এসব যুক্ত করার নূন্যতম যৌক্তিকতাও নেই। তাই প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে বলবো অনতিবিলম্বে এমন ব্যবসার চিন্তা বাদ দেন। ৫ লাখ শিক্ষার্থীর অধিকার নিয়ে ছিনিমিনি খেলার সুযোগ ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন দিবে না। যদি আপনারা এই শিক্ষা বাণিজ্য বন্ধ না করেন ছাত্রদেরকে সাথে নিয়ে আপনাদের এই শিক্ষা বাণিজ্যের বিরুদ্ধে দুর্বার আন্দোলন গড়ে তোলা হবে ইনশাআল্লাহ। 

সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন , ইশা ছাত্র আন্দোলন নারায়ণগঞ্জ জেলার সহ-সভাপতি আব্দুল্লাহ মুহাম্মাদ হাসান, সাংগঠনিক সম্পাদক মুহাম্মাদ আব্দুল হান্নান, প্রশিক্ষণ সম্পাদক মুহাম্মাদ আনোয়ার হোসেনসহ প্রমুখ নেতৃবৃন্দ।

স্পন্সরেড আর্টিকেলঃ