৫ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ১৯শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, মঙ্গলবার, রাত ৪:২৩

নাসিক কাউন্সিলর প্রার্থী আবুল হোসেন


সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি
আসন্ন নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে সিদ্ধিরগঞ্জ থানাধীন ২নং ওয়ার্ডের সম্ভাব্য কাউন্সিলর পদপ্রার্থী সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক হাজী মোঃ ইয়াছিন মিয়ার ছোট ভাই আবু বকর সিদ্দিক (আবুল হোসেন)। জানা গেছে, নির্বাচনকে কেন্দ্র করে আগাম গণসংযোগ হিসেবে তিনি বিভিন্ন কর্মসূচিও হাতে নিয়েছেন। নির্বাচনে তার অংশগ্রহণের গুঞ্জণ ইতিমধ্যে লোকমুখে শোনা যাচ্ছে। আসন্ন এই নির্বাচনে তার অবস্থান বেশ মজবুত বলে মনে করছেন এই প্রার্থী। যার কারণ হিসেবে বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনে নিজেকে জড়িত বলে মনে করছেন তিনি।
আবু বকর সিদ্দিক ২নং ওয়ার্ড শান্তি সংগঠন ও স্বপ্ন সিঁড়ি ক্ষুদ্র সমবায় সমিতির সভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন। এছাড়া তিনি মিজমিজি পশ্চিমপাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের অভিভাবক সদস্য, ২নং ওয়ার্ড ব্যক্তি মালিকানাধীন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পরিচালনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক, সাহেবপাড়া পঞ্চায়েত কমিটি ও মিজমিজি পশ্চিমপাড়া কবরস্থান কমিটির সহ সভাপতি এবং মিজমিজি পশ্চিমপাড়া দীল মোহাম্মদ ঈদগাহ কমিটির কার্যকরী সদস্য।
জানা যায়, তার পূর্ব পুরুষ অত্যন্ত প্রভাবশালী ও সম্পদশালী ছিলেন। অত্র এলাকায় বিভিন্ন রাস্তা, স্কুল, মসজিদ, মাদ্রাসা, ঈদগাহ সহ সকল সামাজিক উন্নয়নের ধারক ও বাহক তার দাদা ছালে মোহাম্মদ মুন্সী। তার মোঝো ভাই হাজী মোঃ ইয়াছিন মিয়া ছোটবেলা থেকে সামাজিক কর্মের মাধ্যমে রাজনীতিতে অংশগ্রহণ করেন। বর্তমানে তার মোঝো ভাই সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদকরে দায়িত্ব পালন করছেন।
আগামী সিটি নির্বাচনে সম্ভাব্য কাউন্সিলর প্রাথী হিসেবে ইতিমধ্যে নানামুখী সমাজ সেবা সহ পরিবেশের উন্নয়ণ ও যুব সমাজকে মাদক মুক্ত রাখতে নানামূখী কর্মসূচি হাতে নিয়েছেন বলে জানিয়েছেন আবু বকর সিদ্দিক। এ বিষয়ে কথা হলে তিনি বলেন, আমি ২নং ওয়ার্ডের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পরিচালক কমিটির সভাপতি নির্বাচিত হয়েছি। অত্র এলাকার সামাজিক উন্নয়ণে আগ্রহী ভূমিকা পালন করছি। এর সব কিছুই সম্ভব হয়েছে আমাদের প্রাণ প্রিয় মাননীয় সংসদ সদস্য আলহাজ¦ এ.কে.এম. শামীম ওসমানের সার্বিক সহযোগীতায়। তাই তার প্রতি চির কৃতজ্ঞ আমরা।
এই প্রার্থী বলেন, জনগণ তাদের মহামূল্যবান ভোটের মাধ্যমে আমাকে সেবা করার সুযোগ দিলে উন্নয়নের মাধ্যমে ২নং ওয়ার্ডকে মডেল ওয়ার্ড হিসেবে পরিণত করবো। জনগণ জনপ্রতিনিধির কাছ থেকে ব্যাক্তিগতভাবে উন্নয়ণ চায়না। জনগণ চায় সামাজিক উন্নয়ণ। আমি সামাজিক উন্নয়নের পরিকল্পনা নিয়ে নির্বাচনী মাঠে নেমেছি। জনগণের সমর্থন নিয়ে মানুষের কল্যাণে কাজ করতে চাই। বংশগত ঐতিহ্য ধরে রাখার জন্য সেবার উদ্দেশ্যে সকলের নিকট দোয়া প্রার্থণা করেন তিনি।
এদিকে আব্দুল মজিদ নামে নাসিক ২নং ওয়ার্ডের এক ভোটার বলেন, নির্বাচনের আগে সবাই ভালো মানুষ হয়ে মাঠে নামে। কিন্তু নির্বাচিত হওয়ার পর জনগণের সাথে প্রতারণা করে থাকেন। যিনি ভোট পাওয়ার যোগ্য ব্যক্তি, আমরা তাকেই ভোট দিয়ে জয়জুক্ত করবো। আমরা এমন প্রার্থী চাই, যে জনগণকে ঠকাবেনা। জনগণের প্রত্যাশা অনুয়ায়ী এলাকার উন্নয়ণে কাজ করবে।

স্পন্সরেড আর্টিকেলঃ