১৬ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ৩১শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, শনিবার, রাত ৩:২৪

নারায়ণগঞ্জে যেভাবে মিলবে করোনা ভ্যাকসিন

সংবাদচর্চা অনলাইনঃ

নারায়ণগঞ্জবাসীদের জন্য ইতিমধ্যে ১ লক্ষ ৫৬ হাজার ভ্যাকসিন এসে পৌঁছেছে। আর এই ভ্যাকসিন কিভাবে কোথায় পাওয়া যাবে তা অনেকেরই জানা নেই।

এ প্রসঙ্গে জেলা সিভিল সার্জন ডা. মোহাম্মাদ ইমতিয়াজ বলেন, সরকারি নিয়ম অনুযায়ী চলতি মাসের ৭ই ফেব্রুয়ারি থেকে নারায়ণগঞ্জের ছয়টি সরকারি হাসপাতালে করোনা ভ্যাকসিন দেওয়া শুরু হবে। তিনি যোগ করেন, নিবন্ধিত ব্যক্তিদেরকেই এই ভ্যাকসিন দেয়া হবে । অনিবন্ধিত কাউকে এই ভ্যাকসিন দেয়া হবে না। যারা এখনো নিবিন্ধন করেননি তাদের নিবন্ধন করার আহবান জানান।

অনলাইনে কিভাবে নিবন্ধন করবো?.

‘সুরক্ষা’ নামক ওয়েব পোর্টালে (www.surokkha.gov.bd) অথবা অ্যান্ড্রয়েড ও অ্যাপল প্লে স্টোর থেকেও সুরক্ষা মোবাইল অ্যাপ ডাউনলোড করে নিতে হবে।

সেখানে ‘নিবন্ধন’ বাটনে ক্লিক করে প্রথমে ধরন নির্বাচন করতে হবে। এরপর জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি) নম্বর, জন্মতারিখ (এনআইডি অনুযায়ী) দিতে হবে। জাতীয় পরিচয়পত্র না থাকলে নিবন্ধন করা যাবে না।  তথ্যগুলো ঠিকমতো দিলে বাংলায় ও ইংরেজিতে নাম দেখাবে। এরপর মোবাইল নম্বর দিতে হবে। দীর্ঘমেয়াদি রোগ বা কো-মরবিডিটি থাকলে সেটা বলতে হবে। টিকা গ্রহণকারীর পেশা এবং কোভিড-১৯ সংশ্লিষ্ট কোনো কাজের সঙ্গে তিনি জড়িত কি না, সেটি বলতে হবে।সবশেষে টিকা গ্রহণকারীর বর্তমান ঠিকানা ও কোন কেন্দ্রে টিকা নিতে ইচ্ছুক, সেটি দিলে নিবন্ধন সম্পন্ন হবে।

# ১৮ বছরের কম বয়সীরা নিবন্ধন করতে পারবে না।

# কোভিড-১৯ টিকার দুটি ডোজ নেওয়ার পর সুরক্ষা ওয়েব পোর্টাল থেকে টিকা সনদ সংগ্রহ করা যাবে।

পরবর্তী ধাপঃ

প্রথমে টিকা কার্ড সংগ্রহ করতে হবে। সুরক্ষা ওয়েব পোর্টাল বা অ্যাপের ‘টিকা কার্ড সংগ্রহ’ বাটনে ক্লিক করে জাতীয় পরিচয়পত্রের নম্বর, জন্মতারিখ দিয়ে ‘যাচাই করুন’ বাটনে ক্লিক করতে হবে। এরপর নিবন্ধনের সময় দেওয়া মুঠোফোনের নম্বরে এসএমএসের মাধ্যমে ওটিপি (ওভার দ্য ফোন) কোড দিয়ে ‘ভ্যাকসিন কার্ড ডাউনলোড’ বাটনে ক্লিক করলে টিকা কার্ড ডাউনলোড হবে।

এসএমএসের মাধ্যমে পাওয়া টিকা গ্রহণের তারিখে নির্দিষ্ট টিকাকেন্দ্রে সশরীরে উপস্থিত হয়ে টিকা নেওয়া যাবে। এ সময় টিকা কার্ড ও জাতীয় পরিচয়পত্র সঙ্গে নিয়ে যেতে হবে।

কোথায় করোনা ভ্যাকসিন দেওয়া হবেঃ

ভ্যাকসিন বিতরণের জন্য শহরের খানপুর ৩০০ শয্যা হাসপাতাল ও ১০০ শয্যা জেনারেল হাসাপাতলসহ আরও ৪টি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নির্ধারণ করা হয়েছে।

স্পন্সরেড আর্টিকেলঃ