আজ বুধবার, ২৫শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৮ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ

নারায়ণগঞ্জেই হবে কিডনী রোগীদের ডায়ালাইসিস

কিডনী রোগীদের ডায়ালাইসিস করতে নারায়ণগঞ্জ থেকে আর ঢাকা যেতে হবে না। গরীবদের জন্য বিনা খরচে আর অন্যদের জন্য স্বল্প খরচে মানসম্মত চিকিৎসার ব্যবস্থা করেছে যমুনা ব্যাংক ফাউন্ডেশন। রূপগঞ্জের তারাব পৌরসভার রূপসী এলাকায় এ প্রতিষ্ঠানটি এখন উদ্বোধনের অপেক্ষায় আছে।

স্থানীয় সংসদ সদস্য এবং বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজীর (বীর প্রতীক) আন্তরিক চেষ্টায় কিডনী রোগে আক্রান্ত হলে রোগে যতটা কাবু হয়, তারচেয়ে বেশী চিন্তায় থাকতে হয় খরচ নিয়ে। ডায়ালাইসিস করতে গাদা গাদা টাকা খরচ করা সবার পক্ষে সম্ভবও হয় না। এসব রোগীদের কথা ভেবেই রূপগঞ্জের সংসদ সদস্য এবং বস্ত্র ও পাট মন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী বীর প্রতিক যমুনা ব্যাংক ফাউন্ডেশনের সহায়তায় তৃতীয় আধুনিক ডায়ালাইসিস সেন্টার স্থাপন করেছে। যেখানে ডায়ালাইসিস করতে অল্প টাকা আর গরীব অসহায়রা পাবে বিনামূল্যে এ সেবা।

যমুনা ব্যাংক লিমিটেড রূপসী শাখার ম্যানেজার ফারুক ইকবাল জানান, যমুনা ব্যাংক ফাউন্ডেশন এর আগে আরও দু’টি ইউনিট স্থাপন করেছে। রূপগঞ্জে ৩ নম্বর ইউনিট। তিনি জানান, জাপান থেকে ৫ টি ডায়ালাইসিস মেশিন নিয়ে এসেছি। দেশের সবচেয়ে টপ ডায়ালাইসিস সেন্টার হবে দাবি করে তিনি বলেন, এখানে গরীব মানুষ সেবা পাবে।


কিডনী রোগীদের জন্য এমন উদ্যোগ নেয়ায় খুশী স্থানীয়রা। তাদের মতে, এ সেন্টার উদ্বোধনের পর আর কষ্ট করে ঢাকা গিয়ে কাউকে ডায়ালাইসিস করতে হবে না। তারাব পৌরসভার ৪ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য আক্তার হোসেন মোল্লা জানান, মন্ত্রী মহোদয় গরীবরা যেন সেবা পায় সেজন্যই এ সেন্টার করেছেন। ইনশাআল্লাহ শীঘ্রই উদ্বোধন হবে।

যাদের সামর্থ্য আছে তারা কম খরচে এখানে উন্নত মানের ডায়ালেসিস করতে পারবে আর যারা একেবারেই গরীব মানুষ তারা বিনা খরচে ডায়ালেসিসের মতো ব্যয়বহুল চিকিৎসা নিতে পারবে এ প্রতিষ্ঠানে। কর্তৃপক্ষ জানান, স্থানীয় সংসদ সদস্য এবং বস্ত্র ও পাট মন্ত্রী গাজী গোলাম দস্তগীর (বীর প্রতীক) এর অনুপ্রেরণায় রূপগঞ্জে ডায়ালাইসিস সেন্টার উদ্বোধনের অপেক্ষায় আছে।

নারায়ণগঞ্জ সিভিল সার্জন ডা. আবুল ফজল মুহম্মদ মুশিউর রহমান জানান, আমি এ ডায়ালাইসিস সেন্টার ভিজিট করেছি। এখানে উন্নত মেশিন আনা হয়েছে। এখানে নামমাত্র সার্ভিস চার্জ নেয়া হবে শুনেছি এছাড়া গরীবরা বিনা খরচে সেবা নিতে পারবে। আমি মাননীয় মন্ত্রীর এমন উদ্যোগকে স্বাগত জানাই এবং জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ সব সময়ে এমন মহৎ উদ্যোগের পাশে থাকবে।

এমন উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছে নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসক ও জেলা সমাজ সেবা অধিদপ্তরের উপ পরিচালক। তারা বলেন, বিত্তবানরা যদি এভাবে এগিয়ে আসে তবে সারা দেশে মানুষ উপকৃত হবে।

জেলা সমাজ সেবা অধিদপ্তরের উপ পরিচালক মো. আসাদুজ্জামান সরদার এর মতে, এটা নারায়ণগঞ্জবাসীর জন্য ভাগ্যের ব্যাপার। বিশেষ করে রূপগঞ্জে এ ডায়ালাইসিস সেন্টারে বিনা খরচে চিকিৎসা পাওয়ার বিষয়টি একটি অনন্য উদ্যোগ। মন্ত্রী মহোদয় যে উদ্যোগ নিয়েছেন এটা যদি সারা দেশে বিত্তবানরা নেয় তবে মানুষ সেবা পাবে।

জেলা প্রশাসক মঞ্জুরুল হাফিজ জানান, দেশের প্রায় দুই কোটি মানুষ কিডনী রোগে আক্রান্ত। এরমধ্যে ৪০ হাজার মানুষের ডায়ালাইসিসের প্রয়োজন হয়। অর্থকষ্টের জন্য সবাই তা করতে পারে না। সময়মতো ডায়ালাইসিস করতে না পারায় ঝুঁকিতে পড়ে। এরমধ্যে যমুনা ফাউন্ডেশন ডায়ালাইসিস সেন্টার স্থাপন করে প্রশংসনীয় কাজ করেছে। মাননীয় মন্ত্রী মহোদয় এমন উদ্যোগ নেয়ায় তাকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি। সারা দেশে যদি এমনটা করা যায় তবে মানুষ উপকৃত হবে।

স্পন্সরেড আর্টিকেলঃ