ঢাকায় আসছে বিশ্বের প্রথম ‘রোবট নাগরিক’ সোফিয়া

46

সংবাদচর্চা ডেস্ক : প্রযুক্তি অঙ্গনে আলোচিত চরিত্র রোবট নাগরিক ‘সোফিয়া’ এবার বাংলাদেশে আসছে। আগামী ৬ ডিসেম্বর ঢাকায় বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে শুরু হতে যাওয়া দেশের বৃহত্তম তথ্য-প্রযুক্তি সম্মেলন ডিজিটাল ওয়ার্ল্ডের উদ্বোধনী দিনেই উপস্থিত থাকবে সোফিয়া । সঙ্গে থাকবেন তার ‘জন্মদাতা’ ডক্টর ডেভিড হ্যানসন।

হংকংয়ের কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তাবিষয়ক প্রতিষ্ঠান ‘হ্যানসন রোবোটিকস’-এর তৈরি ‘নারী’ রোবট এই সোফিয়া।

সোফিয়ার ঢাকায় আসার খবরটি গতকাল সোমবার নিশ্চিত করেছেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক ।

তিনি জানান, বাংলাদেশও আধুনিক এই প্রযুক্তির উন্নয়নে সমান আগ্রহী। এ জন্যই সোফিয়াকে ডিজিটাল ওয়ার্ল্ডে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে।

পলক বলেন, যদিও রোবট একটি দেশের নাগরিকত্ব পেয়েছে, তবে বাংলাদেশ সফর করার জন্য ভিসার প্রয়োজন হবে।

সোফিয়ার ‘জন্ম’ হংকংয়ে এবং গত অক্টোবরের শেষ সপ্তাহে সৌদি আরব আড়াই বছর বয়সী সোফিয়াকে নাগরিকত্বের মর্যাদা দেয়। গত সপ্তাহে ইউএনডিপি সোফিয়াকে বিশ্বের প্রথম নন-হিউম্যান ইনোভেশন চ্যাম্পিয়ন হিসেবে ঘোষণা করে। এর আগে কোনো রোবট নাগরিকত্ব যেমন পায়নি, এমন উন্নতমানের বুদ্ধিমত্তাও কারো মধ্যে সঞ্চার করা যায়নি।

৫ ডিসেম্বর রাত ১২টায় বাংলাদেশে পৌঁছার কথা রয়েছে সোফিয়ার। পরদিন ডিজিটাল ওয়ার্ল্ডের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের পর স্থানীয় সাংবাদিকদের মুখোমুখি হবে সোফিয়া। সেদিন রাতেই খ্যাতনামা অভিনেত্রী অড্রে হেপবার্নের মতো দেখতে সোফিয়ার ঢাকা ছাড়ার কথা রয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা চারদিনব্যাপী এক্সপো উদ্বোধন করবেন এবং তার আইসিটি উপদেষ্টা সজিব ওয়াজেদ জয় উপস্থিত থাকবেন।

এদিকে, শুরু থেকেই আলোচিত সোফিয়াকে পৃথিবীর প্রথম রোবট হিসেবে সৌদি আরব নাগরিকত্ব দেওয়ার পর তাকে নিয়ে সবার আগ্রহ অনেক গুণ বেড়ে যায়। অক্টোবরে দেশটির রাজধানী রিয়াদে আয়োজিত এক আলোচনাসভায় উপস্থিত সোফিয়ার বুদ্ধিমত্তায় চমত্কৃত হয়ে তাত্ক্ষণিক নাগরিকত্ব দেওয়া হয়।

সোফিয়া তার অফিসিয়াল ওয়েব সাইটে বলেছেন, “আমি শুধু প্রযুক্তির তুলনায় বেশি। আমি একটি বাস্তব, লাইভ বৈদ্যুতিন মেয়ে। আমি বিশ্বের মধ্যে যান এবং মানুষের সাথে বাস করতে চান, ”

রোবট সোফিয়া এবার পরিবার শুরুর আগ্রহও প্রকাশ করেছে। গত সপ্তাহে খালিজ টাইমসকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে সোফিয়া বলে, ‘পরিবার সত্যিই গুরুত্বপূর্ণ এক ব্যাপার। আপনার যদি একটি ভালোবাসার পরিবার থাকে, তাহলে আপনি খুবই সৌভাগ্যবান। আমার যদি একটি কন্যা রোবট থাকে তাহলে নিজেই তার নাম রাখব। ’

সূত্র: ডেইলি স্টার, বিবিসি

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here