আজ বুধবার, ৪ঠা বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৭ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

গোলাকান্দাইলে কুপিয়ে যুবক হত্যা,বাড়িতে আগুন

সংবাদচর্চা রিপোর্ট:

স্থানীয় আধিপত্য ও মাদক ব্যবসাকে কেন্দ্র করে রূপগঞ্জ উপজেলার গোলাকান্দাইল ইউনিয়নের গোলাকান্দাই পূর্বপাড়া গ্রামের যুবক একাধিক মামলার আসামি রাকিব হোসেনকে (২২) কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। তার পিতার নাম হারুন মিয়া।

গত ২১ সেপ্টেম্বর বুধবার রাত ১০টায় বাড়ি ফেরার পথে রাকিব হোসেন গোলাকান্দাইল পূর্বপাড়া মসজিদের কাছে সন্ত্রাসীদের কবলে পড়ে। ওত পেতে থাকা ৫/৬ সদস্যের একদল সন্ত্রাসী পূর্ব পরিকল্পিতভাবে চাপাতি ও রামদাসহ দেশীয় অস্ত্রেশস্ত্রে সজ্জিত হয়ে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে তাকে হত্যা করে। রাতের অন্ধকারে দারালো অস্ত্রের আঘাতে রাকিব হোসেন মাটিতে লুটে পড়লে সন্ত্রাসীরা তাকে হাতে, পায়ে, মাথায়, পেটে ও পিঠে দারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাতাড়ি আঘাত করে। রাকিব হোসেনের মৃত্যু নিশ্চিত করে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়। ঘটনার সময় এলাকা বিদ্যুৎবিহীন ছিল।
পরে পথচারীরা রাকিব হোসেনের রক্তাক্ত লাশ রাস্তার পাশে পড়ে থাকতে দেখে ডাক চিৎকার করলে আশপাশের লোকজন ছুটে আসে। এসময় তারা পুলিশকে খবর দেয়। রাত ১১টায় রাকিব হোসেনের সমর্থিতরা ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার সন্দেহে একই গ্রামের দেলোয়ার ও আসমার বাড়িসহ চার বাড়িতে আগুন দেয়। খবর পেয়ে কাঞ্চন ও আড়াইহাজার ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ছুটে এসে আগুন নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আসে। রাত ১২টায় এ রিপোর্ট লেখার সময় এলাকায় উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। এলাকাবাসী রাকিব হোসেনের হত্যাকারীদের গ্রেফতারের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল বের করে। মিছিলকারীরা ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের ও ঢাকা বাইপাস সড়কের ৭/৮ টি পরিবহন ভাংচুর করে। এঘটনায় এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

রূপগঞ্জ থানার ওসি এএফএম সায়েদ, রাত সোয়া ১২টায় ভুলতা ইউপি চেয়ারম্যান ব্যারিষ্টার আরিফুল ইসলাম ও গোলাকান্দাইল ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব কামরুল হাসান তুহিন ঘটনাস্থন পরিদর্শন করেছেন।
রূপগঞ্জ থানার ওসি এএফএম সায়েদ বলেন, এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। মামলার প্রস্তুতি চলছে। সুষ্ঠু তদন্ত করে হত্যাকারীদের গ্রেফতার করা হবে। পরিস্থিতি এখন নিয়ন্ত্রণে।
রূপগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার ফয়সাল হক বলেন, আইনশৃঙ্খলাবাহিনীর সদস্যরা তৎপর রয়েছে। পুলিশ ও র‌্যাব সদস্যরা গোলাকান্দাইল এলাকায় টহল দিচ্ছে।

স্পন্সরেড আর্টিকেলঃ