৭ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ২২শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ, মঙ্গলবার, দুপুর ২:১৮

গোগনগরে অবৈধ হাট বন্ধ

সংবাদচর্চা রিপোর্টঃ

সদর উপজেলার গোগনগরের বাড়িরটেক এলাকায় আওয়ামী লীগ নেতা দেলোয়ার হোসেনের অবৈধ হাটটি বন্ধ করে দিয়েছে উপজেলা প্রশাসন। এই হাটের দরপত্রও বাতিল করা হয়েছে। ওই স্থানে এবার কোন হাট বসবে না বলে জানিয়েছেন সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাহিদা বারিক।

দরপত্র সম্পন্ন হওয়ার আগেই বাড়িরটেক এলাকা পশুর হাটের কার্যক্রম শুরু করেছিলেন আওয়ামী লীগ নেতা দেলোয়ার হোসেন। গতবছর একই স্থানে হাটের ইজারা পেয়েছিলেন তিনি। তবে এবছর এখনও এই হাটের দরপত্র সম্পন্ন হয়নি। আগামী ২৬ জুলাই এই হাটের দরপত্র উন্মুক্ত করা হবে। ইজারা না পেলেও হাটের কার্যক্রম শুরু করে জোর করে বেপারীদের ট্রলার থামিয়ে তার হাটে পশু নামাচ্ছে দেলোয়ার হোসেনের লোকজন।

বৃহস্পতিবার সংবাদচর্চায় ‘গোগনগরে অবৈধ হাট’ সংবাদ প্রকাশিত হওয়ার পর তৎপর হয় প্রশাসন। বৃহস্পতিবার দুপুরে সদর মডেল থানার উপপরিদর্শক (এসআই) ছাইয়েদুল ইসলামের নেতৃত্বে একদল পুলিশ যায় গোগনগর ইউনিয়নের বাড়িরটেক এলাকায়। পরে হাটের সকল কার্যক্রম বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়ে বাঁশ ও মাইক খুলে নেওয়ার নির্দেশ দেন। গরু অন্যত্র সরিয়ে নিতেও বলেন এই পুলিশ কর্মকর্তা।

এ বিষয়ে সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আসাদুজ্জামান বলেন, ইজারা ছাড়া কোন হাট বসানো যাবে না। গোগনগরের ওই হাট বন্ধের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। পুলিশের একটি টিম সেখানে আছে। বাঁশ, মাইক খুলে ফেলা হচ্ছে।
সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) নাহিদা বারিক বলেন, হাটটি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। ওই হাটের দরপত্রও বাতিল করা হয়েছে। এবার সেখানে হাট বসবে না।

স্পন্সরেড আর্টিকেলঃ