আজ বৃহস্পতিবার, ১৬ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৩০শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

`ওয়ান ইলেভেনে নির্যাতনের শিকার হয়েছি,দেশ ছাড়িনি’

টি.আই.আরিফ :

রূপগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি , বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী বীর প্রতীক বলেছেন, ওয়ান ইলেভেনের সময় জননেত্রী শেখ হাসিনার নামে মিথ্যা মামলা না করায় আমি অনেক নির্যাতনের শিকার হয়েছি। ২৭ দিন আমাকে ক্যান্টনমেন্টে আটক রেখে সামরিক বাহিনীর কিছু লোকেরা নির্যাতন করেছে। চোখে বেধে পিটিয়েছে। আমাকে ইলেকট্রিক শট দিয়েছে তবু শেখ হাসিনার নামে আমি মামলা করি নাই, সামরিক বাহিনীর লোকেদের দেওয়া কাগজে সই করি নাই। নেত্রী আমাকে নির্যাতনের খবর জানে। তখন নেত্রী বলেছিলেন গাজী তুমি আমার জন্য অনেক কিছু করেছো , তুমি রূপগঞ্জে মুক্তিযুদ্ধ করেছো তুমি রূপগঞ্জে রাজনীতি করো, তোমাকে রূপগঞ্জ থেকে মনোনয়ন দিলাম। তিনবার এমপি নির্বাচিত হওয়ার পর আমি কারও ক্ষতি করি নাই।

গতকাল রূপসী গাজী ভবনে রূপগঞ্জ উপজেলার বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সাথে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময় অনুষ্ঠানে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।
গোলাম দস্তগীর গাজী বলেন, ওয়ান ইলেভেনের সময় আমি দেশে ছেড়ে পালিয়ে যায়নি। শেখ হাসিনার নির্দেশে রূপগঞ্জে বিএনপি সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলন করেছি। আন্দোলন করতে গিয়ে তারাবতে পুলিশ আমাকে গুলি করেছিলো তারপরও রাজপথ ছেড়ে যায়নি।

মন্ত্রী বলেন, বীর মুক্তিযোদ্ধারা জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান। আমি মুক্তিযোদ্ধা সংসদের পক্ষে কাজ করেছি। বীর মুক্তিযোদ্ধারা কোন অমুক্তিযোদ্ধার কাছে বিক্রি হতে পারে না। বঙ্গবন্ধুর ডাকে আমরা যুদ্ধ করে এ দেশ স্বাধীন করেছি। আওয়ামী লীগ মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের শক্তি। আগামী নির্বাচনে সকল মুক্তিযোদ্ধারা নৌকার পক্ষে কাজ করবে। বীর মুক্তিযোদ্ধার পক্ষে থাকবে। নৌকা আছে ,নৌকা জিতবে।
অনুষ্ঠানে রূপগঞ্জ উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক ডেপুটি কমান্ডার আমানউল্লাহ সহ রূপগঞ্জের সকল ইউনিয়ন ও পৌরসভার কমান্ডার ও ডেপুটি কমান্ডারা উপস্থিত ছিলেন।

স্পন্সরেড আর্টিকেলঃ