আজ মঙ্গলবার, ১লা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৬ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

ইমরান খানের বিরুদ্ধে আনা অনাস্থা ভোট নাকচ

অনলাইন ডেস্ক:

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের পরামর্শে সংসদ ভেঙে দিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট আরিফ আলভি। ইমরান খানের বিশেষ সহকারী শাহবাজ গিলের টুইটের বরাতে এমন খবরই দিয়েছে পাকিস্তানি সংবাদমাধ্যম জিও নিউজ।

পাকিস্তানের আরেক প্রভাবশালী গণমাধ্যম ডনের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ইমরানের পরামর্শে সাড়া দিয়ে প্রেসিডেন্ট আরিফ আলভি সংবিধানের ৫৮ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী সংসদ ভেঙে দিয়েছেন।

এর আগে ডন জানিয়েছিল, ইমরান খান বর্তমান সংসদ ভেঙে দিতে প্রেসিডেন্ট আরিফ আলভিকে পরামর্শ দিয়েছেন। ইমরান খানের দাবি, তিনি আরও অনেকের কাছ থেকে বার্তা পেয়েছেন যারা জাতির সামনে হতে যাওয়া বিশ্বাসঘাতকতা নিয়ে উদ্বিগ্ন ছিলেন। তিনি বলেন, ‘আমি বলতে চাই, ঘাবড়াবেন না। আল্লাহ পাকিস্তানকে দেখছেন।’
ডন আরও জানিয়েছিল, এ সময় লিখিতভাবে সংসদ ভেঙে দেওয়ার বিষয়টি প্রেসিডেন্টকে জানানোর কথা বলেছেন ইমরান। তিনি বলেছেন, গণতান্ত্রিক ব্যবস্থায় সবকিছুই জনগণের কাছে যাওয়া উচিত। নির্বাচন হবে, জনগণই সিদ্ধান্ত নেবে তারা কাকে চান।

এদিকে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি তার শিরোনামে বলেছে, ‘তাকে সরাতে চাওয়ার মুখেই নতুন নির্বাচন চাইলেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।’ খবরে বলা হয় ইমরান খান প্রেসিডেন্টের প্রতি পার্লামেন্ট ভেঙে নতুন নির্বাচন দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন।

কাতার ভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ইমরান খানের বিরুদ্ধে আনা অনাস্থা ভোট নাকচ করে দিয়েছে পাকিস্তানের পার্লামেন্ট। এছাড়া ইমরান খানের বিরুদ্ধে আনা অনাস্থা প্রস্তাব নাকচ করে দিয়েছেন দেশটির জাতীয় পরিষদের (পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষ) ডেপুটি স্পিকার কাসিম খান সুরি। এটিকে সংবিধানের অনুচ্ছেদ ৫–এর বিরোধী আখ্যা দিয়েছেন ডেপুটি স্পিকার।
সূত্র: জিও নিউজ, ডন, বিবিসি, আল জাজিরা

স্পন্সরেড আর্টিকেলঃ