আড়াইহাজারে বিশনন্দী ফেরীঘাটের পল্টুনটি ৫ মাস ধরে অকেজো

385

 

রফিকুল ইসলাম রানা, আড়াইহাজার প্রতিনিধি:-

নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার উপজেলার বিশনন্দী ফেরী ঘাটের একটি পল্টুন দীর্ঘ ৫ মাস যাবত অকোজো হয়ে পড়ে আছে। যার ফলে দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে যাত্রীদেরকে।

কৃর্তপক্ষের উদাসীনতার কারণে একটি মাত্র সিঁড়ির অভাবে পল্টুনটি ব্যবহার করা যাচ্ছে না। ফলে দুটি পল্টুনই চিরতরে বাতিল হয়ে যাওয়ার উপক্রম হয়েছে।

জানা গেছে, বি,বাড়িয়ার বাঞ্ছারামপুর উপজেলার সঙ্গে নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার উপজেলার যোগাযোগের এক মাত্র অবলম্বন বিশনন্দী ফেরী ঘাট। দুটি ফেরীর মাধ্যমে বৃহত্তর মেঘনা নদী পাড়ি দিয়ে দুই জেলার মধ্যে একটি সেতু বন্ধন তৈরী হয়েছে। এই দুই জেলাসহ আশে-পাশের কয়েক জেলার হাজার হাজার যাত্রী এ ফেরী দুটির মাধ্যমে রাজধানীর সাথে যোগাযোগ রক্ষা করে চলেছে। কিন্তু ফেরী দুটিও আজ জরাজীর্ণ অবস্থায় ঝুঁকি নিয়ে চলাচল করছে।

ফেরীতে উঠা- নামার সহায়ক হিসেবে কাজ করে দুটি পল্টুন । আর পল্টুন দিয়ে ফেরীতে উঠার জন্য দরকার একটি মাত্র সিঁড়ি। দীর্ঘ প্রায় ৫ মাস যাবত সিঁড়িটি না থাকায় পল্টুনটি কোন কাজেই আসছে না। ফলে অতিরিক্ত চাপে পড়ে অপর পল্টুনটি ও বিকল হওয়ার পথে।

ফেরী ঘাটের ইজারাদার মাহাবুব জানান, পল্টুনটি মেরামত না করায় সরকারের কোটি টাকার সম্পত্তি নষ্ট হচ্ছে। সেই সাথে পল্টুনের সামনের জায়গা গুলো অবৈধ ভাবে দখল হয়ে যচ্ছে স্থানীয় লোকজনের দ্বারা। অপর দিকে যাত্রীরা জানায়, দুটি ফেরী দিয়ে চলছে বিশনন্দী ফেরী ঘাট। বর্তমানে দুটি ফেরীই ঝুঁকি পুর্ণ হয়ে পড়েছে।
এ ব্যাপারে সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ আলীউল্লাহ জানান, এ নিয়ে উপ বিভাগীয় প্রকৌশলীর ছাত্তার সাহেবের সাথে কথা বলেন। বিভাগীয় প্রকৌশলী আঃ সাত্তার মিয়া মুঠাফোনের কল সিরিভ করেননি।
উপসহকারী প্রকৌশলী আহসানউল্লাহ মজুমদার ফেরীর সমস্যার কথা স্বীকার করে জানান, ফেরী দুটির সমস্যা সম্পর্কে নজর দেয়া হচ্ছে। আশা করি কিছু দিনের মধ্যে ঠিক হয়ে যাবে।

For Advertisement: 01921400867/ 01981617415

সংবাদচর্চায় প্রকাশিত/প্রচারিত সংবাদ, ছবি, ভিডিও, তথ্য কনটেন্ট বিনা অনুমতিতে ব্যবহার বেআইনি।