৩রা আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৭ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, বৃহস্পতিবার, দুপুর ২:০৪

৫০০ টাকায় ৫ এমবিপিএস ইন্টারনেট

নিজস্ব প্রতিবেদক:

এখন থেকে গ্রাম কিংবা শহর – সারাদেশে একরেটে একই পরিমাণ ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট পাওয়া যাবে। ৫ এমবিপিএস ৫০০ টাকা , ১০ এমবিপিএস ৮০০ টাকা এবং ২০ এমবিপিএস এক হাজার ২০০ টাকায় পাওয়া যাবে।

রবিবার (৬ জুন) টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরসিতে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এই ঘোষণা দেওয়া হয়। এক দেশ এক রেট শিরোনামের এই অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার।

অনুষ্ঠানে আরও জানানো হয়, ইন্টারনেট সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান আইএসপিএবি সহ একাধিক প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে আলোচনা করে এই দাম নির্ধারণ করেছে সরকার। এর ফলে ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেটের মূল্য নিয়ে সারাদেশে যে বিশৃঙ্খলা ছিল তা দূর হবে বলে প্রত্যাশা সংশ্লিষ্টদের। এছাড়া সারাদেশে একই মূল্য নির্ধারিত হওয়ায় ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেটের গ্রাহকসংখ্যা বাড়বে বলেও আশা করা হচ্ছে।

বিটিআরসি চেয়ারম্যান শ্যাম সুন্দর সিকদারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তফা জব্বার।

তার বক্তব্যে ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী বলেন, ‘ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়তে সারাদেশে ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেটের এক রেট চালু একটি গুরুত্বপূর্ণ মাইলফলক। আগে আমরা বলতাম ইউনিয়ন পর্যায়ে উচ্চগতির ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট নিয়ে যাব। এখন ইউনিয়ন পর্যায়ে ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট রয়েছে। আমরা এখন বাড়ি বাড়ি ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট পৌঁছাব’।

মন্ত্রী আরও বলেন, ‘ইন্টারনেট ছাড়া এক মুহূর্ত থাকতে পারব এটি এখন আর ভাবা যায় না। করোনাকালে ইন্টারনেটের অবদান অনেক। দেশের সর্বত্রই দ্রুতগতির ইন্টারনেট পৌঁছাতে আমরা সক্ষম হয়েছি। পুরো দেশ এখন ফোর-জি নেটওয়ার্কের আওতায়। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা আছে, বাংলাদেশের কোনো বাড়ি যাতে ইন্টারনেটের বাইরে না থাকে। তাই প্রতিটি বাড়িতে ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট পৌঁছে দেওয়া হবে। গ্রামকে শহরে রূপান্তর করতে এটি গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখবে’।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ সচিব আফজাল হোসেন, বিটিআরসি ভাইস চেয়ারম্যান সুব্রত রায় মৈত্র, কমিশনার (লিগ্যাল অ্যান্ড লাইসেন্সিং) আবু সৈয়দ দিলজার হোসেন, আইএসপিএবির সভাপতি আমিনুল হাকিম, সাধারণ সম্পাদক ইমদাদুল হক, আইআইজি ফোরামের সাধারণ সম্পাদক আহমেদ জুনায়েদ।

স্পন্সরেড আর্টিকেলঃ