আজ বুধবার, ৪ঠা বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৭ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

স্ত্রীর হাতের কব্জি কেটে বিচ্ছিন্ন করা স্বামী গ্রেপ্তার

নিজস্ব প্রতিবেদক:

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় যৌতুকের টাকা না পেয়ে স্ত্রীকে হাত-পা বেঁধে ধারালো চাপাতি দিয়ে ডান হাতের কব্জি কেটে বিচ্ছিন্ন করা সেই পাষন্ড স্বামী মো. রফিক (৩১) কে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার র‌্যাব সদর দপ্তর গোয়েন্দা শাখার সহযোগিতায় র‌্যাব-১১ ও র‌্যাব-৭ এর যৌথ অভিযানে চট্টগ্রাম মহানগরীর হালিশহর থানা এলাকা থেকে রফিককে গ্রেপ্তার করা হয়।

শুক্রবার র‌্যাব-১১’র প্রধান কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে র‌্যাব-১১’র অধিনায়ক লেঃ কর্নেল তানভীর মাহমুদ পাশা এ তথ্য জানান।

র‌্যাব-১১’র অধিনায়ক লেঃ কর্নেল তানভীর মাহমুদ পাশা, পিএসসি আরো জানান, গত ১৫ জানুয়ারি নারায়ণগঞ্জ জেলার ফতুল্লা মডেল থানাধীন ভূইগর এলাকায় যৌতুকের টাকা না পাওয়ায় পাষন্ড স্বামী রফিক তার স্ত্রীকে হাত-পা বেঁধে ধারালো চাপাতি দিয়ে ডান হাতের কব্জি কেটে বিচ্ছিন্ন করে ফেলে।
এ ঘটনায় ভিকটিমের ভাই মো. রুবেল (২৭) বাদী হয়ে ৎফতুল্লা মডেল থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা দায়ের করেন, যার মামলা নং-৪৩, তারিখ-১৯/০১/২০২২ইং, ধারা-২০০০ সালের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন (সংশোধনী-২০০৩) এর ১১(ক)।

এ ঘটনার পর রফিক (৩১) ভিকটিমকে বাসায় তালাবদ্ধ করে পালিয়ে যায় এবং গ্রেপ্তার এড়ানোর জন্য দেশের বিভিন্ন স্থানে আত্মগোপন করে।

এ ঘটনায় র‌্যাব প্রয়োজনীয় তথ্যাদি সংগ্রহ সহ এই নৃশংস ঘটনার আসামী মো. রফিককে গ্রেফতারের জন্য র‌্যাব-১১ এর একটি গোয়েন্দা দল ছায়া তদন্ত শুরু করে।

এরই ধারাবাহিকতায় গত ১০ ফেব্রুয়ারি র‌্যাব সদর দপ্তর গোয়েন্দা শাখার সহযোগিতায় র‌্যাব-১১ ও র‌্যাব-৭ এর যৌথ অভিযানে এই নৃশংস ঘটনার আসামী মোঃ রফিককে চট্টগ্রাম মহানগরীর হালিশহর থানা এলাকা থেকে গ্রেফতার করে।

গ্রেপ্তারকৃত রফিক জানায়, প্রায় দেড় বছর পূর্বে রফিক ও ভিকটিম বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়। বিয়ের পর ব্যবসার জন্য তার স্ত্রীর নিকট দুই লাখ টাকা যৌতুক দাবী করে।

স্পন্সরেড আর্টিকেলঃ