আজ বুধবার, ১৫ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২৯শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

সোনারগাঁয়ে হত্যা মামলার দুই আসামি গ্রেপ্তার

নিজস্ব প্রতিবেদক:

সোনারগাঁও থানার বাগমুছা ঋষিপাড়া এলাকার একটি পুকুর হতে নিখোঁজ ফয়সাল আহম্মেদের মৃত দেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এ হত্যাকান্ডে জড়িত দুই আসামীকে ৪ ফেব্রুয়ারি গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১১ (সিপিসি-১)। গ্রেফতারকৃত আসামিরা হলের অপূর্ব চন্দ্র দাস (১৯), তপু চন্দ্র দাস ওরফে অপু (২৫) । তাদের বাড়ি সোনারগাঁয়ে।

শুক্রবার এক সংবাদ সম্মেলনে র‌্যাব জানান, এটি একটি পরিকল্পিত হত্যাকান্ড এবং পূর্বশত্রুতার জের ধরে তারা এ হত্যাকান্ডটি ঘটায়। আসামীদ্বয় সম্পর্কে চাচা-ভাতিজা। গত ২৬ জানুয়ারি রাতে আসামী অপূর্ব চন্দ্র দাস (১৯) ফোনে ভিকটিমকে তার সাথে দেখা করতে বলে। পরবর্তীতে ভিকটিম অপূর্বের সাথে দেখা করতে গেলে অপূর্ব ভিকটিমকে জরুরী কথা আছে বলে তার বাড়ির পাশে থাকা উচু ভিটায় নিয়ে যায়। পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী ভিকটিমের সাথে কথা বলার এক ফাঁকে আসামী অপূর্ব তার হাতে থাকা দড়ি দিয়ে ভিকটিমের গলা পেচিয়ে ধরে তার বুকের ওপর ওঠে। এ সময় ভিকটিম চিৎকারের চেষ্টা করলে অপর আসামী অপু ভিকটিমের পা দড়ি দিয়ে বাধে এবং মুখ চেপে ধরে। পরবর্তীতে মৃত্যু নিশ্চিত হলে দুজন মিলে মৃতদেহ গুম করার উদ্দেশ্যে পরস্পরের সহায়তায় তাদের বাড়ির অদূরে ঝোপের মধ্যে থাকা একটি পুকুরে কচুরীপানার নিচে লাশ ডুবিয়ে রাখে। অবশেষে গোয়েন্দা কার্যক্রম ও তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় গ্রেফতারকৃত আসামীদ্বয়ের দেয়া তথ্য অনুযায়ী নিখোঁজ ফয়সালের মৃতদেহ উদ্ধার করে।

আসামীদ্বয় উক্ত হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে। আসামীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন।

স্পন্সরেড আর্টিকেলঃ