৩রা আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১৭ই জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, বৃহস্পতিবার, বিকাল ৩:০১

সাওঘাটে হেফাজতের হরতালে ভাংচুর, রাকিবের দোষ স্বীকার

সংবাদচর্চা রিপোর্ট:

গত ২৮ মার্চ হেফাজতের ডাকা হরতালে রূপগঞ্জ থানার সাওঘাট এলাকায় সেলিম প্রধানের বাড়ীর সামনে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের উপর অজ্ঞাতনামা দুষ্কৃতিকারীরা সংঘবদ্ধ হয়ে রাস্তায় চলাচলরত যানবাহন ভাংচুর করে।

পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে দুষ্কৃতিকারীরা দৌড়িয়ে পালানোর চেষ্টাকালে আসামী সোহেল রানা (৪০) , সোহেল ভুইয়া ওরফে বাবু (৩৪) , মিলন মোল্লা (৩৩) , রাকিব হোসেন (১৯) কে গ্রেফতার করে। ঘটনাস্থল থেকে ভাংচুর করা একটি ট্রাক জব্দ করে। অতঃপর ধৃত আসামীসহ থানায় হাজির হয়ে এজাহারনামীয় ৩০ জনসহ অজ্ঞাতনামা ২০/২৫ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করে। রূপগঞ্জ থানার মামলা নং-৬৫ (২৮/০৩/২০২১ইং) , ধারা-২০০৯ সালের সন্ত্রাস বিরোধী আইন (সংশোধনী/২০১৩) এর ৬(১)(ক) এর (ই)/১২।

থানা পুলিশ কিছু দিন তদন্ত করার পর পুলিশ হেডকোয়ার্টার্সের নির্দেশে পিবিআই, নারায়ণগঞ্জ জেলা অধিক গুরুত্ব সহকারে তদন্ত কার্যক্রম গ্রহণ করে। তদন্ত কার্যক্রমের অংশ হিসেবে থানা কর্তৃক গ্রেফতারকৃত এজাহারনামীয় আসামী রাকিব হোসেন (১৯) কে পুলিশ রিমান্ডে এনে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে পুলিশের কাছে স্বীকার করে, সে নিজে সহ তার এলাকার ২৫/৩০ জন লোক উক্ত ভাংচুরের ঘটনায় অংশগ্রহণ করে।

৬ মে নারায়ণগঞ্জ সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট হুমায়ন কবির এর আদালতে তাকে উপস্থাপন করলে সে ঘটনার সাথে নিজেকে এবং স্থানীয় বিএনপি নেতা কাজী তাজকে জড়িয়ে ঘটনাস্থলে থাকা ট্রাক ভাংচুরের বিষয়ে ফৌঃ কাঃ বিঃ ১৬৪ ধারা মোতাবেক বিস্তারিত দোষ স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদান করে। পুলিশের নিকট সে আরো কিছু চাঞ্চল্যকর তথ্য প্রদান করে। তার দেওয়া তথ্যাদি যাচাই-বাচাই করে সম্পৃক্ত অন্যান্য আসামীদের গ্রেফতার অভিযান অব্যাহত আছে।

স্পন্সরেড আর্টিকেলঃ