আজ মঙ্গলবার, ১১ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২৫শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

‘ সবাই প্রধানমন্ত্রীর সমাবেশে যাবেন’

টি.আই.আরিফ

রূপগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি , বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী বীরপ্রতীক বলেছেন, আওয়ামী লীগ উন্নয়নের সরকার। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা আগামী ২ ফেব্রুয়ারি রূপগঞ্জে আসবে। আমরা তার কাছে যা চেয়েছি তিনি সবই দিয়েছেন। রূপগঞ্জের সর্বক্ষেত্রে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী উন্নয়ন করেছেন। ভুলতা ফ্লাইওভার হয়েছে, গাজী সেতু হয়েছে ,সুলতানা কামাল সেতু হয়েছে। মুড়াপাড়া কলেজ সরকারী করণ করেছি। উন্নয়নের শেষ নেই। জনগণ আমাদের উন্নয়নের সুফল ভোগ করছে।
কায়েতপাড়া ও চনপাড়াবাসীর উদ্দেশে মন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রীর সমাবেশে লক্ষাধিক লোকের সমাবেশ ঘটবে। আপনারা সবাই আমাদের নেত্রী শেখ হাসিনাকে দেখতে যাবেন। কেউ বিশৃঙ্খলা করবেন না। আমি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে চনপাড়াবাসীর পক্ষে কথা বলবো। বঙ্গবন্ধু চনপাড়াবাসীকে রেখে গেছেন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে আমি বলবো আপনি মানবতার মা, আপনি বঙ্গবন্ধুর রেখে যাওয়া চনপাড়াবাসীকে বাঁচান।
গতরাতে চনপাড়া শেখ রাসেল নগরে আল আরাফাহ ইসলামিয়া দাখিল ও হাফিজিয়া মাদ্রাসার উদ্যোগে তাফসীরুল কোরআন মাহফিলে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।
অনুষ্ঠানে কায়েতপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ¦ জাহেদ আলী বলেন , গাজী সাহেবের জন্য কায়েতপাড়াবাসী ধন্য। গাজী সাহেবের নেতৃত্বে আমরা আছি এক সাথে। কায়েতপাড়ার মাটি গাজী সাহেবের ঘাঁটি। আগামী ২ ফেব্রুয়ারি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর অনুষ্ঠানে আমরা সবাই যাবো। মাননীয় মন্ত্রী মহোদয় আমাদেরকে বিভিন্ন নির্দেশ দিয়েছে। অনুষ্ঠানে রূপগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য নূরে আলম মুন, ইউপি সদস্য ওমর ফারুক ভুঁইয়া, কায়েতপাড়া ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবকলীগ সভাপতি আলমগীর হোসেন, কায়েতপাড়া ইউনিয়ন যুবলীগ সভাপতি আশিক ইকবাল সহ স্থানীয় নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
প্রসঙ্গত আগামী ২ ফেব্রুয়ারি কাঞ্চন ব্রিজ এলাকায় ঢাকা ম্যাস র‌্যাপিট ট্যানজিট ডেভলপমেন্ট প্রজেক্ট লাইন-১ এর ডিপো এক্সেস করিডর নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী। এরপর তিনি সুধী সমাবেশে ভাষণ দেবেন। প্রধানমন্ত্রীর আগমন ঘিরে রূপগঞ্জে নেতাদের প্রস্তুতি তুঙ্গে।

স্পন্সরেড আর্টিকেলঃ