আজ সোমবার, ১১ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

‘শেখ হাসিনার নেতৃত্বে নজিরবিহীন উন্নয়ন হয়েছে’

নিজস্ব প্রতিবেদক:

শেখ হাসিনার শাসনামলে দেশে নজিরবিহীন উন্নয়ন হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী বীর প্রতীক। মন্ত্রী বলেন, আওয়ামী লীগ উন্নয়নে বিশ^াসী। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বলিষ্ঠ নেতৃত্বে একের পর এক উন্নয়নে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করে খুনিরা ভেবেছিল বাঙালি আর কোনো দিন মাথা তুলে দাঁড়াবে না, জাগবে না। তার কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আজ বাঙালি জেগে উঠেছে।
গোলাম দস্তগীর গাজী বলেন, করোনার মধ্যে পৃথিবীর উন্নত দেশগুলোতেও উন্নয়নের কাজ থমকে গেলেও বাংলাদেশে কোনো উন্নয়নকাজ থামেনি। বাংলাদেশের এমন উন্নয়ন দেখে বিশ্বের উন্নত দেশগুলোর রাষ্ট্রপ্রধানেরা বিস্মিত। আর এমন উন্নয়ন একমাত্র শেখ হাসিনাকে দিয়েই সম্ভব। তিনি আধুনিক বাংলাদেশের রুপকার। শেখ হাসিনা ক্ষমতায় থাকলে দেশের উন্নয়ন হয়, অন্যদের (বিএনপি) সময়ে লুটপাট হয়েছে।

বৃহস্পতিবার ( ৩১ মার্চ) মুড়াপাড়ায় ‘স্বল্পোন্নত দেশ হতে উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণ, বঙ্গবন্ধু হতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা’ শীর্ষক আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী বীর প্রতীক এসব কথা বলেন।

নারায়ণগঞ্জ -১ আসনের সংসদ সদস্য গোলাম দস্তগীর গাজী বলেন, শুধু আমাকে বলবেন আর কাউকে বলবেন না এটা ঠিক না। সবাইকে নিয়েই আমাদেরকে এগিয়ে যেতে হবে। শিক্ষা ছাড়া উন্নয়ন সম্ভব নয়। জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকার শিক্ষাখাতে গুরুত্ব দিয়েছেন। শিক্ষার্থীরা বিনামূল্যে বই পাচ্ছে। প্রত্যেকটা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নতুন ভবন হয়েছে। ২০০৯ সালের আগে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের অবস্থা ভালো ছিলো না। শিক্ষকদের বেতন ছিলো কম। জননেত্রী শেখ হাসিনা ক্ষমতায় এসে কয়েক হাজার প্রাইমারী স্কুল জাতীয়করণ করেছেন। সেই শিক্ষকরা এখন সুখে আছে।

তিনি বলেন, বিএনপির আমলে দেশে বিদ্যুতের অভাব ছিলো। জননেত্রী শেখ হাসিনার দেশে বিদ্যুতের ঘাটতি পূরণ করেছে। এখন দেশে লোডশেডিং কম। শিল্প প্রতিষ্ঠান বিদ্যুত পাচ্ছে। রূপগঞ্জে প্রতিটা বাড়িতে শতভাগ বিদ্যুত পাচ্ছে। মানুষের কর্মসংস্থান হচ্ছে। মানুষের ক্রয় ক্ষমতা বাড়ছে। মানুষ বিনামূল্যে ওষুধসহ স্বাস্থ্যসেবা পাচ্ছে। সরকার জনগণের জন্য করোনার টিকার ব্যবস্থা করেছে। যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়ন হয়েছে। পদ্মা সেতু উদ্বোধনের অপেক্ষায় রয়েছে। মেট্টো রেলের কাজ চলমান । ভুলতা ফ্লাইওভার হয়েছে। গাজী সেতু হয়েছে। রূপসী -কাঞ্চন রাস্তার কাজ চলমান । খাদ্য উৎপাদন বাড়ছে। সরকার বিভিন্ন প্রকার ভাতা প্রদান করছে। ক্যান্সার সহ বিভিন্ন জটিল রোগীদেরকে সরকার সহায়তা প্রদান করছে। খেলাধুলায় দেশ এগিয়ে যাচ্ছে।

মন্ত্রী বলেন, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশে নারীর ক্ষমতায়ন হয়েছে। আমরা বিশ্বাস করি নারীর ক্ষমতায়নের মাধ্যমে জনগণের ক্ষমতায়ন সম্ভব। কারণ দেশের অর্ধেক জনসংখ্যা হচ্ছে নারী। জনগণের ক্ষমতায়ন যদি করতে হয় নারীর ক্ষমতায়ন প্রয়োজন। এখন নারীদের শাসন করা যাবে না। রাজনীতিতে নারীরা এগিয়ে যাচ্ছে।

এসময় রূপগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ¦ শাহজাহান ভুঁইয়া, ভাইস চেয়ারম্যান সোহেল আহমেদ, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সৈয়দা ফেরদৌসী আলম নীলা, রূপগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহ্ নুসরাত জাহান, কাঞ্চন পৌরসভার মেয়র রফিকুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন। পরে মন্ত্রী বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন।

স্পন্সরেড আর্টিকেলঃ