আজ শনিবার, ১১ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২৫শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

শামীম ওসমানের মুখে হেলেনার সুর

নিজস্ব প্রতিবেদক:

হেলেনা জাহাঙ্গীর। প্রধানমন্ত্রী ছাড়া বাংলাদেশের অন্যকোন মন্ত্রী গোনার সময় তার নেই। এমন বক্তব্য রেখে তুমুল আলোচনা-সমালোচনায় আসেন ওই নারী। এরপর তিনি অনেক কিছুই ‘গুনেছেন’ নিজ কৃতকর্মের কারণে। সে যাই হোক, প্রধানমন্ত্রী ছাড়া কোনো মন্ত্রী গোনার সময় না পাওয়া আলোচিত সেই হেলেনা জাহাঙ্গীরের সুরেই সুর মিলিয়েছেন নারায়ণগঞ্জের আলোচিত সংসদ সদস্য শামীম ওসমান। বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী ছাড়া তিনি আর কোন নেতাকে গোনায় ধরেন না।

গত শনিবার নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় নাসিম ওসমান মেমোরিয়াল পার্কে অনুষ্ঠিত মত বিনিময় সভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে শামীম ওসমান বলেছেন, ‘আমরা নারায়ণগঞ্জে কারো পায়ে ভর দিয়ে রাজনীতি করি না। আমাদের নেতা একজনই ‘শেখ হাসিনা’। বাকি আর কাউকে নেতা হিসেবে গোনায় ধরি না।’ সাংসদ শামীম ওসমানের এই মন্তব্য নিয়ে তুমুল আলোচনা চলছে আওয়ামী লীগ অঙ্গণে। নিজ দলের নেতাদের এমন হেয় করে বক্তব্য রাখার বিষয়টি নানা ভাবে বিশ্লেষণ করছেন আওয়ামী লীগের স্থানীয় রাজনীতিবীদরা।

স্থানীয় রাজনীতিবীদদের অনেকেই বলছেন, নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের নির্বাচনে নৌকার প্রার্থী সেলিনা হায়াত আইভীর প্রতি তার অবস্থান যথেষ্ট প্রশ্ন তুলেছে। বিশেষ করে নৌকার প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্রপ্রার্থী তৈমূর আলম খন্দকারের পক্ষে শামীম ওসমান আড়ালে কাজ করেছেন এবং তৈমূর শামীম ওসমানের প্রার্থী বলে প্রকাশ্যে অভিযোগ করেছেন মেয়র আইভী। নির্বাচনে নৌকার প্রচারণায় ঢাকা থেকে আসা নেতারাও আইভীর বক্তব্যের সত্যতা উপলব্ধি করেছেন। ইঙ্গিতে হুশিয়ার করেছিলেন সাংসদ শামীম ওসমানকে।

বিশেষ করে, আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানক ও আব্দুর রহমান বলেছেন, ‘নৌকার বিরুদ্ধে নৌকার একজন এমপি ষড়যন্ত্র করছে। আগামীতে তিনি (শামীম ওসমান) নৌকা কিকরে পান তা তারা দেখে নিবেন।’ কেন্দ্রীয় নেতাদের অনেকেই জানিয়েছেন, সিটি নির্বাচনে শামীম ওসমানের ভূমিকা আওয়ামী লীগের হাইকমান্ডেও যথেষ্ট প্রশ্নের উদ্বেগ তৈরী করেছে। এরই মাঝে শামীম ওসমান অনুসারী অধ্যুষিত আওয়ামী লীগের বিভিন্ন অংগ সংগঠনের কমিটি বিলুপ্তের মাধ্যমে শামীম ওসমানের প্রতি কেন্দ্রের সৃষ্ট চাপ পরিলক্ষিত হয়। নির্বাচনের কিছুদিন আগে শামীম ওসমানের সংবাদ সম্মেলন এবং তার দেয়া বক্তব্যে বিষয়টি আরো পরিস্কার হয়। কেন্দ্র এবং স্থানীয় পর্যায়ে শামীম ওসমানের পূর্বের তেজস্বী অবস্থান যখন হ্রাস পেতে শুরু করছে, তখন সংসদ ভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাকে সিটি নির্বাচনে নৌকার বিজয়ের জন্য ধন্যবাদ জানিয়েছে বলে একটি বার্তা চারিদিকে ছড়িয়ে দেন আলোচিত এই সংসদ সদস্য। এমনকি গত শনিবার কর্মীদের সাথে হুট করে মতবিনিময় সভা ডেকে ওই ঘটনার বর্ননা দেন শামীম ওসমান। একই সভায় তিনি বললেন, প্রাধানমন্ত্রী ছাড়া অন্য কাউকে গোনার সময় তার নেই। তাই অনেকেই বলছেন, নিজ কর্মীদের কাছে নিজের অবস্থান জাহির করতেই এসব বলে বেড়াচ্ছেন দলীয় ভাবে কোনঠাসায় পড়া শামীম ওসমান।

আওয়ামী লীগ নেতারা বলছেন, একই ধরনের কথা ইতিপূর্বে বলেছিলেন সমালোচিত হেলেনা জাহাঙ্গীর। তিনি বলে ছিলেন, কোন মন্ত্রী গোনার সময় তার নেই। এর কিছুদিন পরেই নিজ কর্মফলের কারণে রাজনীতি থেকেই ‘ভ্যানিস’ হয়ে যান হেলেনা জাহাঙ্গীর। অনেকটা চাপের মুখে থেকে সেই হেলেনার সুরেই সুর মেলালেন শামীম ওসমান। বললেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ছাড়া তিনি কোন নেতাকে গোনায় ধরেন না। তা নিয়ে নানামুখি আলোচনা চলছে খোদ আওয়ামী লীগ অঙ্গণেই।

স্পন্সরেড আর্টিকেলঃ