আজ বুধবার, ১৩ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২৮শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

রূপগঞ্জে উত্তপ্ত ছাত্র রাজনীতি

সংবাদচর্চা রিপোর্ট:

ছাত্রদলের কমিটি করাকে কেন্দ্র করে উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে রূপগঞ্জ। থানা ছাত্রদল কয়েকটি বলয়ে বিভক্ত হয়েছে। বিতর্কিতদের দিয়ে রূপগঞ্জ থানা ছাত্রদলের আহবায়ক কমিটি করার প্রতিবাদে নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রদল সভাপতি মশিউর রহমান রনি ও সাধারণ সম্পাদক সজিবের বিরুদ্ধে গত ১১ ফেব্রুয়ারি ভুলতায় ছাত্রদলের পদবঞ্চিত নেতাকর্মীরা বিক্ষোভ মিছিল করেছে। গেল ৬ ফেব্রুয়ারি থেকে পর্যায়ক্রমে রূপগঞ্জের সাতটি ইউনিয়নে এই বিক্ষোভ হয় । বিক্ষোভ মিছিলে রনি -সজিবের ছবিতে জুতার মালা পড়িয়ে তা দাহ করা হয়। এসময় বিক্ষুব্ধ ছাত্রদল নেতাকর্মীরা শ্লোগান দেয় ‘রনি- সজিবের দুই গালে জুতা মারো তালে তালে’। অর্থের বিনিময় রূপগঞ্জ থানা ছাত্রদলের আহবায়ক কমিটি মানি না মানবো না।

তারা বলেন , ত্যাগী, পরীক্ষীতদের থানা ছাত্রদলের কমিটি থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে। দিপু ভুঁইয়ার অনুগতদের প্রমোশন দেওয়া হয়েছে। অবিলম্বে রূপগঞ্জ থানা ছাত্রদলের আহবায়ক কমিটি থেকে বিতর্কিতদের বাদ দেওয়ার দাবি জানান বক্তারা ।
উল্লেখ্য গত ৬ ফেব্রুয়ারি রূপগঞ্জ থানা ছাত্রদলের ২১ সদস্য বিশিষ্ট আহবায়ক কমিটি অনুমোদন দিয়েছে জেলা ছাত্রদল সভাপতি মশিউর রহমান রনি ও সাধারণ সম্পাদক খায়রুল ইসলাম সজিব। কমিটির সদস্যরা হলেন আহবায়ক নাহিদ হাসান ভুঁইয়া, যুগ্ম আহবায়ক শরীফ হোসাইন, রাকিব হাসান রাজা, মো: জাহিদুল ইসলাম, হাবিবুর রহমান হাবিব, আলমগীর হোসাইন নয়ন,আশরাফুল ইসলাম হৃদয়, রাফসান হোসেন, মো: কামরুল হাসান, শফিকুল ইসলাম, শামীম মিয়া, আব্দুল্লাহ রহমান জয়, সদস্য সচিব মাছুম বিল্লাহ, সদস্য ইসহাক মিয়া, শিমুল হোসেন, জোবায়ের মোল্লা, তারিকুল ইসলাম শান্ত, সানি মিয়া, আবির, আরিফুল ইসলাম, তন্ময়। রূপগঞ্জ থানা ছাত্রদলের বেশ কয়েকজন বাদ পড়েছে। তা নিয়ে অনেক কথা হচ্ছে।

স্পন্সরেড আর্টিকেলঃ