আজ বুধবার, ২৫শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৮ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ

রাজপথে মহিলা লীগ

টি.আই.আরিফ

মহিলা দল ,যুব মহিলা দলের কার্যক্রম নেই! জাতীয় নির্বাচনকে ঘিরে রূপগঞ্জে তৎপর আওয়ামী মহিলা লীগ ও যুব মহিলা লীগের নেতাকর্মীরা। বিরোধী দলের ভাংচুর ও নৈরাজ্য প্রতিহত করার লক্ষ্যে মাঠে থাকার ঘোষণা দিয়েছে রূপগঞ্জ উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগ ও যুব মহিলা লীগ নেতৃবৃন্দ। সম্প্রতি এক অনুষ্ঠানে তারা এই ঘোষণা দেন। গত ১০ ডিসেম্বর ঢাকায় বিএনপির সমাবেশ ঘিরে নাশকতা রোধে মাঠে ছিলো তারা। গত ৭ জানুয়ারি রূপসীতে সন্ত্রাস বিরোধী মিছিল করেছে মহিলা লীগ ও যুব মহিলা লীগ নেতৃবৃন্দ। সুত্রের খবর এলাকায় তারা সতর্ক রয়েছে।

এক অনুষ্ঠানে রূপগঞ্জ উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ও তারাব পৌরসভার মেয়র হাছিনা গাজী বলেন, বিএনপি গর্তে পড়ে আছে। সেই গর্ত থেকে বিএনপি আর উঠতে পারবে না। ওরা যা বলছে তা হবে না।

মহিলা বিষয়ক সম্পাদক সৈয়দা ফেরদৌসী আলম নীলা বলেন, রূপগঞ্জে বিএনপিকে কোন নৈরাজ্য করতে দেওয়া হবে না।
রূপগঞ্জ উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক শ্রীমতি সীমা রানী পাল বলেন, আমরা ভুলতায় সতর্ক অবস্থানে থাকবো। আমাদের মহিলা লীগ নেতৃবৃন্দ মাঠে ।

রূপগঞ্জ উপজেলা যুব মহিলা লীগ সভাপতি ফেরদৌসী আক্তার রিয়া ও সাধারণ সম্পাদক সেলিনা আক্তার রিতা বলেন, রূপগঞ্জ উপজেলা যুবমহিলা লীগ নেতাকর্মীরা মাঠে আছে, নির্বাচন পর্যন্ত থাকবো। রূপগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগ আমাদেরকে যে নির্দেশ দেবে আমরা তা পালন করবো।
চনপাড়া যুব মহিলা লীগ সভাপতি নাজমীন সুলতানা বলেন, আমাদের নেতা গোলাম দস্তগীর গাজী বীরপ্রতীকের হাতকে শক্তিশালী করার লক্ষ্যে চনপাড়াতে আমরা যুব মহিলা লীগ কাজ করে যাচ্ছি।

এদিকে গত শনিবার (২৬ নভেম্বর) রাজধানীর ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে মহিলা আওয়ামী লীগের ষষ্ঠ জাতীয় সম্মেলনে রূপগঞ্জ থেকে হাছিনা গাজী একটি বিশাল মিছিল নিয়ে সম্মেলন স্থলে প্রবেশ করেন । তার মিছিল দেখে মুগ্ধ কেন্দ্রীয় নেত্রীবৃন্দ।

হাছিনা গাজী বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে মহিলা আওয়ামী লীগ কাজ করে যাচ্ছে। যেকোনো অপশক্তি রুখতে আমরা সবসময় রাজপথে আছি। আওয়ামী লীগকে আবারও ক্ষমতায় আনতে হবে। দেশের মানুষ এখন বোঝে কারা দেশের জন্য কাজ করে।

স্পন্সরেড আর্টিকেলঃ