আজ রবিবার, ১৯শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৪ঠা ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

‘যেকোন সমস্যা মোকাবেলার জন্য প্রস্তুত আছি’

নবকুমার:
বিরোধী দলের কঠোর সমালোচনা করে রূপগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি , বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী বীরপ্রতীক বলেছেন, বিরোধী দল বলছে আমরা নাকি কিছুই করতে পারি নাই। আমি বিরোধী দলের নেতাদের বলবো আমরা পারছি। আমরা ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ দিয়েছি। যুদ্ধের কারণে এখন লোডশেডিং হচ্ছে। যুদ্ধ বন্ধ হলে সব ঠিক হয়ে যাবে। আপনারা (বিএনপি) জনগণকে বিদ্যুৎ দিতে পারেন নাই। ফ্রান্সের মতো দেশে বিদ্যুতের জন্য এখন আন্দোলন হচ্ছে। রাশিয়া, ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে সারা পৃথিবীতে জিনিসপত্রের দাম বাড়ছে। সারা পৃথিবীতে আন্দোলন হচ্ছে। আওয়ামী লীগ গণমানুষের দল। এখন আওয়ামী লীগ সরকারের দায়িত্ব জনগণকে কিভাবে ভালো রাখা যায়। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সেই লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছেন।

মন্ত্রী বলেন, কেউ জমি খালি রাখবেন না। এটা আপনাদের কাছে আমার আবেদন। সবাই ফসলের চাষ বাড়াবেন, যাতে বাইরে থেকে আমাদের ফসল কিনে আনতে না হয়। সারা পৃথিবীতে ফসলের সমস্যা দেখা দিতে পারে। আমাদের দেশী সার দিয়ে ফসল উৎপাদন করতে হবে। সারা পৃথিবীতে দুর্ভিক্ষ হওয়ার সম্ভাবনা আছে। যুদ্ধ বন্ধ হলে আমরা বেঁচে যাবো। যুদ্ধ বন্ধ হবে কিনা সেটা একমাত্র আল্লাহ্ ভালো জানেন। আমরা নিজেরা সাবধান হবো। ডলার সংরক্ষণ করবো। সবাই সাশ্রয়ী হবেন। কেউ খাদ্য নষ্ট করবেন না। বিদ্যুৎ অপচয় করবেন না। বাড়িতে গাছ লাগাবেন। সমস্যা আসবে,যাবে। আপনাদের কোন সমস্যা থাকলে আমাকে জানাবেন , যে কোন সমস্যা মোকাবেলা করার জন্য আমি প্রস্তুত আছি। আগামী দুই মাসের মধ্যে কেওঢালা ব্রিজের টেন্ডার হবে।

বৃহস্পতিবার (২০ অক্টোবর) কায়েতপাড়া ইউনিয়নের মাঝিনা এলাকায় আহমদিয়া ইসলামিয়া ফাজিল মাদ্রাসার ৪ তল ভীত বিশিষ্ট একাডেমিক ভবন উদ্বোধন অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

শেখ হাসিনাকে শিক্ষাবান্ধব প্রধানমন্ত্রী উল্লেখ করে বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী বলেন, মাঝিনা আহমদিয়া ইসলামিয়া ফাজিল মাদ্রাসায় আমরা অনেক উন্নয়ন করেছি। মাদ্রাসাটির অবস্থা আগে ভালো ছিলো না। আমরা নতুন ভবন দিয়েছি। রাস্তা করে দিয়েছি। কিছু দিনের মধ্যে মাদ্রাসার বাউন্ডারী করার ব্যবস্থা করবো। শুধু মাঝিনা নয় সারা রূপগঞ্জে প্রত্যেকটা মাদ্রাসায় আমরা নতুন ভবন করেছি। স্কুল, কলেজেও নতুন ভবন করে দিয়েছি। সারাদেশে প্রত্যেকটা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নতুন ভবন দিয়েছেন। বিনা মূল্যে বই দিচ্ছেন। এসব কাজের জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে রূপগঞ্জবাসীর পক্ষ থেকে অভিনন্দন । অতীতে কোন সরকার শেখ হাসিনার মতো এতো উন্নয়ন করেনি। তিনি শিক্ষিত পরিবারের সন্তান। তার ছেলে মেয়েরাও সবাই উচ্চ শিক্ষিত।

এসময় কায়েতপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব জাহেদ আলী, ইউপি সদস্য মোয়াজ্জেম হোসেন, সেলিনা আক্তার রিতা,ওমর ফারুক ভুঁইয়া, মাঝিনা মৌজার আহমাদিয়া ইসলামিয়া ফাজিল মাদরাসার অধ্যক্ষ আব্দুল মজিদ মোল্লা, রূপগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের সাধারন সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান শাহিন, কায়েতপাড়া ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি আশিক ইকবাল, কায়েতপাড়া ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা আল হোসেন রাসেল, স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা ইমন হাসান খোকন,আলমগীর হোসেন, কায়েতপাড়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক নাদিম হোসেন অপুসহঅনেকে উপস্থিত ছিলেন।

স্পন্সরেড আর্টিকেলঃ