আজ মঙ্গলবার, ১৪ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২৮শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

‘যা চেয়েছি প্রধানমন্ত্রী সবই দিয়েছে’

সংবাদচর্চা রিপোর্ট:

আগামী ২ ফেব্রুয়ারি রূপগঞ্জে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সমাবেশ সফল করার লক্ষ্যে প্রস্তুতি সভা করেছে শহীদ বকুল স্মৃতি সংসদ। গতরাতে রূপসী বাসস্ট্যান্ড এলাকায় শহীদ বকুল স্মৃতি সংসদের কার্যালয়ে এই প্রস্তুতি সভা হয়।
সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন রূপগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি গাজী গোলাম মর্তুজা পাপ্পা। তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ গণমানুষের দল। জননেত্রী শেখ হাসিনা ক্ষমতায় থাকলে দেশের উন্নয়ন হয়। আমরা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে যা চেয়েছি তিনি রূপগঞ্জে সব দিয়েছে। রূপগঞ্জের মতো এতো উন্নয়ন অন্য কোন উপজেলায় হয়নি। জনগণ এখন আমাদের উন্নয়নের সুফল ভোগ করছে।

মন্ত্রীপুত্র গাজী গোলাম মর্তুজা পাপ্পা তারাববাসীর উদ্দেশে বলেন, আমার বাবা ,মা আপনাদেরকে ফ্রি সাভিস দিয়ে আসছে। আমরা আপনাদের সুখে-দুঃখে আছি। গাজী সেতু, ভুলতা ফ্লাইওভার, সুলতানা কামাল সেতু দিয়ে আপনারা বিনামূল্যে এখন চলাচল করতে পারছেন। কাঞ্চনে বিএনপি সরকারের করা একটি সেতুতে এখনও টাকা দিয়ে পার হতে হয়। সবাই গাজী সাহেবের উন্নয়ন দেখে পক্ষ নেবেন। পাতাল রেল নির্মাণ কাজ রূপগঞ্জ থেকে শুরু হচ্ছে।
তিনি আরও বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার অনুষ্ঠানের গেট বন্ধ হয়ে গেলে কোন উপায় নাই ডুকার। সবাই সেদিন সকালে ঘুম থেকে উঠে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে জনসভায় যাবেন। বাংলার প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনাকে কাছে থেকে আরেকবার সবাই দেখবেন। তিনি রূপগঞ্জকে খুবই পছন্দ করেন। দয়া করে কেউ মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর অনুষ্ঠানে বিভক্তি দেখাবেন না। জনগণ ভোট দিয়ে টানা ৩ বার জননেত্রী শেখ হাসিনাকে প্রধানমন্ত্রী বানিয়েছে। বাংলাদেশের জনগণের ভোটে আমরা চতুর্থবার ক্ষমতায় যাওয়ার দ্বারপ্রান্তে। এই সময় অনেক কিছু ঘটবে। সেদিন আমাদের একটাই শ্লোগান শেখ হাসিনা, শেখ হাসিনা। বাইরের শ্লোগান চলবে না। অনেকে শকুনের ডাক দেবে, দয়া করে কেউ সারাদেবেন না। নেত্রীকে আমরা দেখিয়ে দেবো রূপগঞ্জের মাটি শেখ হাসিনার ঘাঁটি। রূপগঞ্জের মাটি আওয়ামী লীগের ঘাঁটি। এ মাটিতে কোন অপশক্তির ঠাঁই হবে না।

শহীদ বকুল স্মৃতি সংসদের সভাপতি ও ৪ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আক্তার হোসেন মোল্লার সভাপতিত্বে ও শহীদ বকুল স্মৃতি সংসদের সহ-সভাপতি আব্দুল্লাহ খান মুন্নার সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, ৪ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ফিরোজ আলম খাঁন, বীর মুক্তিযোদ্ধা আক্তার হোসেন, শহীদ বকুল স্মৃতি সংসদের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য মো: শহীদুল ইসলাম, রফিকুল ইসলাম পনির খাঁন, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল হালিম ভুঁইয়া, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক নূরুল ইসলাম রিপন, কার্যকরী সদস্য আইনুল কবীর দিমন, সাবেক সাধারণ সম্পাদক মেহেদী হাসান বাবেল, ওয়াদুদ ভুঁইয়া, মুকুল ভুঁইয়া, সুরুজ্জামান ভুঁইয়া, শেরে আলম ভুঁইয়া, মাহাবুবুল হক ভুঁইয়া, রূপগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি তানজিল আহমেদ রিয়াজ প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন গাজী সাহেবের জন্য রূপসীবাসী ধন্য। মাননীয় বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজীর নেতৃত্বে আমরা রূপসী গ্রামের সবাই মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর অনুষ্ঠানে যাবো। গাজী সাহেবের নেতৃত্বে আমরা আছি এক সাথে। আগামী নির্বাচনে আমরা গাজী সাহেবের পক্ষে কাজ করবো। সামাজিক উন্নয়নে তার অবদান অনেক।

স্পন্সরেড আর্টিকেলঃ