আজ বৃহস্পতিবার, ১৬ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৩০শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

‘যারা যে কথা বলেছেন তা রক্ষা করবেন’

টি.আই.আরিফ:

রূপগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ,বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী বীরপ্রতীক বলেছেন, কে কত লোক দেবে সেটাই এখন দেখার বিষয়। বঙ্গবন্ধুর কন্যাকে রক্ষা করতে হলে আমরা সবাই রক্ষা পাবো। মাঠ আমাদের দখলে রাখতে হবে। ২০০৮ সালে মাঠ আমাদের দখলে ছিলো বলেই আমরা ক্ষমতায় এসেছি। বিএনপি যতই মাঠে থাক আমরা যদি মাঠ দখলে রাখতে পারি ক্ষমতা আমাদের। মাঠ দখলে রাখতে হলে অবশ্যই আমাদের কর্মী সমাবেশ ঘটনাতে হবে।
আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক (ঢাকা বিভাগ) মির্জা আজমের উদ্দেশে গোলাম দস্তগীর গাজী বীরপ্রতীক বলেন, কার কত লোক আপনি আমাদের ভিডিওগুলো সংরক্ষন করে দেখবেন। আমরা কে আসল কথা বলি কে নকল কথা বলি সেটা ভিডিওর মাধ্যমে দেখবেন। আপনাকে খুশি করার জন্য কারও মুখের কথা বিশ্বাস করবেন না। আমাদের দুটি সমাবেশ আছে। প্রথম সমাবেশে রূপগঞ্জ থেকে আমি ৭ হাজার মহিলা সহ ৩০ হাজার লোক নিয়ে যাবো। শেষ মিটিংয়ে ১০ হাজার মহিলাসহ ৩৫ হাজার লোক নিয়ে যাবো। আমরা কোন মিথ্যা কথা বলি না, যা বলি সেইটা করি।
দলীয় নেতাকর্মীদের উদ্দেশে বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী বলেন, এই বার কিন্তু অগ্নিপরীক্ষা। আমাদের বিরুদ্ধে অনেক বড় বড় শক্তি নিয়োজিত আছে। এই অগ্নিপরীক্ষায় আমাদেরকে পাস করতে হবে। কেউ এক পা পিছুপা হবেন না, যারা যে কথা বলেছেন তা রক্ষা করবেন।
গতকাল নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসকের সার্কিট হাউজে আওয়ামী লীগের বিশেষ বর্ধিত সভায় মন্ত্রী এসব কথা বলেন।
অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক (ঢাকা বিভাগ) মির্জা আজম, নজরুল ইসলাম এমপি, শামীম ওসমান, নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি আব্দুল হাই, সাধারণ সম্পাদক আবু হাসনাত শহীদ বাদল। একইদিনে রূপগঞ্জে জিপিএ ৫ প্রাপ্ত শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে যোগদান করেন গোলাম দস্তগীর গাজী বীরপ্রতীক। এসময় উপস্থিত ছিলেন তারাব পৌরসভার মেয়র হাছিনা গাজীসহ অনেকে।

স্পন্সরেড আর্টিকেলঃ