আজ বুধবার, ১৩ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২৮শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

মুড়াপাড়ায় জুয়েলারি ব্যবসায়ীরা আতঙ্কিত

সংবাদচর্চা রিপোর্ট:

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলার মুড়াপাড়া দক্ষিণ বাজারের পোদ্দার জুয়েলারি ওয়ার্কসে প্রকাশ্যে পিস্তল উঁচিয়ে চাঁদা দাবির ঘটনায় সন্ত্রাসীরা গ্রেফতার না হওয়ায় জুয়েলারী ব্যবসায়ীদের মধ্যে এখনো আতঙ্ক বিরাজ করছে। ঘটনার তিন দিন অতিবাহিত হলেও গত ২৫ জুলাই সোমবার বিকাল ৫টা পর্যন্ত পিস্তল উঁচিয়ে দুই লাখ টাকা চাঁদা দাবিদার সন্ত্রাসী ফাহিম মোল্লাকে (২১) পুলিশ গ্রেফতার করতে পারেনি। অস্ত্রও উদ্ধার হয়নি।

গত ২৫ জুলাই সোমবার নারায়ণগঞ্জ জুয়েলারি সমিতির সভাপতি হানিফ উদ্দিন ও সাধারণ সম্পাদক হাজী আমির হোসেন পোদ্দার জুয়েলারি ওয়ার্কস পরিদর্শন করেন। এসময় মুড়াপাড়া বাজারের জুয়েলারি ওয়ার্কসের মালিক ও কর্মচারীরা বিক্ষুদ্ধ হয়ে ওঠে।

সমিতির সভাপতি হানিফ উদ্দিন বলেন, জুয়েলারি ব্যবসায়ীদের শতভাগ নিরাপত্তা দিতে হবে। ৪৮ ঘন্টার মধ্যে অস্ত্র উদ্ধার ও সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার করতে হবে। অন্যথায় আগামী ২৭ জুলাই বুধবার রূপসী-কাঞ্চন সড়কের মুড়াপাড়া বাজার এলাকায় মানববন্ধনসহ কঠোর আন্দোলনের কর্মসুচি পালন করা হবে।
এদিকে মুড়াপাড়া বাজার এলাকায় টহল পুলিশ বৃদ্ধি করা হয়েছে। দিন-রাত পুলিশ টহল দিচ্ছে। তবুও ব্যবসায়ীদের আতঙ্ক কাটেনি। কোনো কোনো দোকানে নতুন করে সিসি ক্যামেরা স্থাপন করা হচ্ছে।

মুড়াপাড়া বাজার স্বর্ণ ব্যবসায়ী সমিতির সাংগঠনিক সম্পাদক রিপন চন্দ্র পাল বলেন, শীতলক্ষ্যা নদীর পশ্চিম পাড়ে রূপগঞ্জ থানা ভবন অবস্থিত। পূর্বপাড়ে উপজেলা কমপ্লেক্স, বহু শিল্প প্রতিষ্ঠান ও ঐতিহ্যবাহী মুড়াপাড়া বাজার অবস্থিত। ব্যবসায়ীদের প্রয়োজনে এখানে পুলিশ ক্যাম্প স্থাপন করা প্রয়োজন।

উল্লেখ্য গত ২৩ জুলাই শনিবার বিকেলে রূপগঞ্জের মুড়াপাড়া দক্ষিণ বাজারের পোদ্দার জুয়েলারি ওয়ার্কসের মালিক রানা পোদ্দারের কাছে হাউলীপাড়া এলাকার সন্ত্রাসী ফাহিম মোল্লা প্রকাশ্যে দুই লাখ টাকা চাঁদা দাবী করে। চাঁদার টাকা দিতে অস্বীকার করায় জুয়েলারি ওয়ার্কসের মালিক রানা পোদ্দারকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে সন্ত্রাসীরা স্বর্ণালংকার ও নগদ টাকাসহ দশ লক্ষাধিক টাকার মালামাল লুটে নেয়। বিষয়টি দোকানের সিসি ক্যামেরায় ধারণকৃত ভিডিও ফুটেজ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ব্যাপক ভাইরাল হয়।
এ ব্যাপারে পোদ্দার জুয়েলারি ওয়ার্কসের মালিক রানা পোদ্দার বাদী হয়ে ফাহিম মোল্লা ও তার সহযোগি অজ্ঞাত আট/নয় জনকে আসামী করে রূপগঞ্জ থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

রূপগঞ্জ থানার ওসি এ এফ এম সায়েদ বলেন, অস্ত্র উঁচিয়ে চাঁদা দাবিদারকে সিসি ক্যামেরার ফুটেজ ও তদন্ত করে চিহ্নিত করা হয়েছে। অস্ত্র উদ্ধার ও সন্ত্রাসীকে গ্রেফতারে পুলিশ তৎপর রয়েছে।

স্পন্সরেড আর্টিকেলঃ