১২ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৮শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, বৃহস্পতিবার, সকাল ৮:১১

মাসুম বাদ,টাকার বিনিময়ে যুবদলের আহবায়ক

সংবাদচর্চা রিপোর্ট:

টাকা বিনিময়ে ব্যর্থদের দিয়ে রূপগঞ্জ উপজেলা যুবদলের আহবায়ক কমিটি অনুমোদন দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে ! কমিটির আহবায়কের বয়স ৬০ বছর। এ দাবি রূপগঞ্জ উপজেলা যুবদলের আহবায়ক কমিটি থেকে পদ বঞ্চিতদের। পদ বঞ্চিতরা নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রী কার্যালয়ের সামনে সোমবার ২৭ সেপ্টেম্বর ওই কমিটি বাতিলের দাবিতে প্রতিবাদসভা ও বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে। সভায় বক্তব্য রাখেন সাবেক রূপগঞ্জ উপজেলা ছাত্রদল নেতা আবু মাসুম। তিনি বলেন, নিষ্ক্রিয় ,অযোগ্য ,আওয়ামী লীগের দালালদেরকে নিয়ে রূপগঞ্জ উপজেলা যুবদলের আহবায়ক কমিটি গঠন করা হয়েছে। তারেক রহমান যাদেরকে কমিটি গঠনের দায়িত্ব দিয়েছিলেন তারা জেলা যুবদলের সভাপতি ও সেক্রেটারীর সাথে আতাঁত করে অসৎ উপায়ে কমিটি দিয়েছে। উপজেলা যুবদলের আহবায়কের বয়স ৬০ বছর । উনি ব্যর্থ। মাঠের কর্মীদের কমিটি থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে। আমরা এই কমিটি মানি না।

গত ১৮ সেপ্টেম্বর নারায়ণগঞ্জ জেলা যুবদল সভাপতি শহিদুল ইসলাম টিটু ও সেক্রেটারী গোলাম ফারুক খোকন ৩৭ সদস্য বিশিষ্ট রূপগঞ্জ উপজেলা আহবায়ক কমিটি অনুমোদন দিয়েছেন। কমিটির আহবায়ক দেলোয়ার হোসেন , যুগ্ম আহবায়ক আমিনুল ইসলাম প্রিন্স, শামীম মিয়া, গোলজার হোসেন, আসাদুজ্জামান নাসিম, ইমন, নুর মোহাম্মদ, শামীম ভুঁইয়া, আব্দুল্লাহ আল মামুন ( নয়ন) , মোস্তফা মিয়া, রাজীব ভুঁইয়া, আসাদুজ্জামান ফকির, সদস্য সচিব নূর হাসান ( বাবুল) , সদস্য কামাল হোসেন, মোশারফ হোসেন, নূর বক্স, আব্দুল বাতেন মিয়া, কামাল নাসের, ওবায়দুর রহমান রকি, নাদীম কাজী, সোহেল মাহমুদ, আনোয়ার হোসেন , নুর, টিপু সুলতান, মানছুর মিয়া, আরিফুল ইসলাম, ইয়াসিন মিয়া, সেলিম মিয়া, সোহেল রানা বাবু, আব্দুর রহমান রাজ, তারিকুল ইসলাম তপু, সোলায়মান মিয়া, মিরাজ হোসেন, মোজাম্মেল হোসেন, আলমগীর মিয়া, খোরশেদ আলম, নাইমুল ইসলাম আরিফ।

এছাড়া তারাব ও কাঞ্চন পৌর যুবদলের ৩৩ সদস্য বিশিষ্ট পৃথক আহবায়ক কমিটি গঠন করা হয়েছে।

সুত্রের খবর বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য মোস্তাফিজুর রহমান দীপু ভুইয়ার সমর্থকরা রূপগঞ্জ উপজেলা ও পৌর যুবদলের আহবায়ক কমিটিতে অধিকাংশ পদ পেয়েছে। এবার রূপগঞ্জ উপজেলা যুবদলের আহবায়ক কমিটির পদ প্রত্যাশী ছিলেন সাবেক ছাত্রদল নেতা আবু মাসুম। তিনি বহু মামলার আসামী। দলের জন্য তিনি সর্বশেষ ২০২০ সালের ৫ নভেম্বর পুলিশের হাতে গ্রেফতার হয়েছিলেন। এতো কিছুর পরও তাকে যুবদলের আহবায়ক কমিটি থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে। বাদের প্রতিবাদে মাসুম সমর্থকরা বিক্ষোভ ও প্রতিবাদসভা করেছে।

স্পন্সরেড আর্টিকেলঃ