আজ বুধবার, ১৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৩০শে নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

বিএনপির রূপ বদল!

স্টাফ রিপোর্টার :

হঠাৎ বদলে গেছে নারায়ণগঞ্জ বিএনপির চেহারা। ক’দিন আগেও যে দলটি রাজপথে দাঁড়াতেই পারেনি, সময়ের ব্যবধানে সেই দলই কিনা কাপিয়েছে শহরের প্রাণকেন্দ্র চাষাঢ়া। গতকালের মাঠ কাঁপানো কর্মসূচির পর নারায়ণগঞ্জ বিএনপি নিয়ে এমন মন্তব্যই করছেন বিভিন্ন মহল।
জানা গেছে, নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির আয়োজনে গত ২ মার্চ বিকেলে চাষাঢ়া কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। ‘সরকারের দুর্নীতি ও অব্যবস্থাপনায় দেশব্যাপী দ্রব্যমূল্যের উর্ধ্বগতির’ প্রতিবাদে অনুষ্ঠিত ওই সমাবেশে বিএনপির কয়েক হাজার কর্মী সমর্থকের আগমন ঘটে। এতে শহীদ মিনার প্রাঙ্গণসহ আশপাশের শাখা সড়ক পর্যন্ত কানায় কানায় পরিপূর্ন হয়। নেতাকর্মীদের একের পর এক শ্লোগাণে প্রকম্পিত হয় নগরী। দীর্ঘ সময় পর বিএনপির এই জোয়ার দেখে অনেককেই ইতিবাচক মন্তব্য করতে শোনা যায়। এক সময় পুলিশি বাধায় রাজপথে দাঁড়াতে না পাড়া বিএনপির হঠাৎ করেই রূপ বদল হয়েছে বলেও মন্তব্য করেন কেউ কেউ।
এদিকে, কেবল জেলা বিএনপির কর্মুসূচিই নয় ; গত ২৮ ফেব্রুয়ারি মহানগর বিএনপিও একই কর্মসূচি দিয়ে শহরে তাক লাগিয়ে দেয়। কেন্দ্র ঘোষিত ওই কর্মসূচিটিও চাষাঢ়া কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে অনুষ্ঠিত হয়। এতে দেখা যায়, গোটা শহীদ মিনার প্রাঙ্গণ নেতকর্মীদের পদচারনায় পরিপূর্ন হয়ে উঠে। দু’দিন আগ-পিছে অনুষ্ঠিত মহানগর ও জেলা বিএনপির উভয় সমাবেশই দীর্ঘ সময় অব্দি চলমান থাকে।
উভয় সমাবেশেই বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দরা উপস্থিত ছিলেন। এতে বিএনপির সহযোগি সংগঠন, ছাত্রদল, যুবদল, স্বেচ্ছাসেবক দল, তাতী দল, কৃষকদল ও মৎসজীবী দলের নেতাকর্মীদের সরব উপস্থিতি লক্ষ করা গেছে। বিশেষ করে গতকালের জেলা বিএনপির কর্মসূচিতে সেই আড়াইহাজার থেকে শুরু করে প্রতিটি থানা, ইউনিয়ন ও শতশত নেতকর্মীরা দুপুরের মধ্যেই শহরে এসে মিছিল নিয়ে সমাবেশ স্থলে যোগদেয়। তাদের শ্লোগাণের জোয়ার ছড়িয়ে পড়ে সমাবেশ স্থলে।
তথ্য বলছে, বিগত সময়ে দলীয় কর্মসূচিতে নারায়ণগঞ্জের বিএনপি নেতারা ব্যর্থতার পরিচয় দিয়ে আসছিল বারংবার। ফলে এক সময়ের রাজপথ কাঁপানো নারায়ণগঞ্জ বিএনপি পরিণত হয় ডুবন্ত জাহাজে। সম্প্রতি নতুন উদ্যমে জাগতে শুরু করেছে নারায়ণগঞ্জ বিএনপি নামক সেই ডুবন্ত জাহাজ। এতে করে, উজ্জিবীত হচ্ছে বিএনপির তৃণমূল। বর্তমান কর্মসূচিগুলোতে ব্যাপক লোক সমাগম করছে দলটি।
এদিকে, দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে সমাবেশ অনুষ্ঠিত হলেও এই সমাবেশকে পূঁজি করে সরকার উৎখাতের হুংকারও দিচ্ছে বিএনপি নেতারা। এমনকি আগামী দিনের আন্দোলন সংগ্রামের উপাদেয় হিসেবে বেছে নেয়া হয়েছে এই সমাবেশকে।
সমাবেশে নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত আহবায়ক মনিরুল ইসলাম রবির সভাপতিত্বে এবং সদস্য সচিব মামুন মাহমুদের পরিচালনায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার উপদেষ্টা ও ঢাকা মহানগর উল্টর বিএনপির আহবায়ক আমান উল্লাহ আমান, আরো বক্তব্য রাখেন বিএনপির ঢাকা বিভাগীয় কমিটির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুস সালাম আজাদ, বিএনপি নেতা নজরুল ইসলাম আজাদ, বেনজির আহমেদ টিটু, বিএনপির নির্বাহী কমিটির সদস্য আজহারুল ইসলাম মান্নান, ফতুল্লা থানা বিএনপির আহবায়ক জাহিদ হাসান রোজেল, সদস্য সচিব শহীদুল ইসলাম টিটু, যুগ্ম আহবায়ক রুহুল আমিন শিকদার, সিদ্ধিরগঞ্জ থানা বিএনপির আহবায়ক আব্দুল হাই রাজু, রূপগঞ্জ থানা বিএনপির আহবায়ক মাহফুজুর রহমান হুমায়ুন, সদস্য সচিব বাছির উদ্দীন বাচ্চু, যুগ্ম আহবায়ক ও জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি আনোয়ার ছাদাত সায়েম, আড়াইহাজার থানা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক লুৎফুর রহমান আব্দু, নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রদলের সভাপতি মশিউর রহমান রনি প্রমূখ।

স্পন্সরেড আর্টিকেলঃ