আজ বৃহস্পতিবার, ৬ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২০শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

বিআইডব্লিউটিএ এর দরপত্র আহ্বান

সেন্ট্রাল খেয়াঘাট সহ ২৩টি ঘাট পয়েন্টের দরপত্র আহবান করেছে বিআইডব্লিউটিএ বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ-পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআইডব্লিউটিএ) এর নিয়ন্ত্রনাধীন ১৫নং অনুচ্ছেদে বর্ণিত লঞ্চঘাট, ফেরীঘাট, শুল্ক আদায় কেন্দ্র, ল্যান্ডিং স্টেশন এবং লেবার হ্যান্ডলিং পয়েন্ট সমূহ ২০২৮-২০২৫ অর্থ বছরের জন্য নারায়ণগঞ্জ জেলার ২৩টি ঘাটের ইজারার জন্য দরপত্র আহবান করা হয়েছে।

আগামী ২৮ ও ২৯ মে দুই দিনে উক্ত ২৩টি ঘাটের দরপত্রের টেন্ডার অনুষ্ঠিত হবে।  বিআইডব্লিউটিএ নারায়ণগঞ্জ নদী বন্দর এর যুগ্ম পরিচালক মোস্তাফিজুর রহমান স্বাক্ষরিত পত্রে উক্ত দরপত্র আহবান করা হয়েছে।

টেন্ডারের দিন দুপুর সাড়ে ১২টা পর্যন্ত দরপত্রের নির্ধারিত মূল্য পরিশোধ পূর্বক যুগ্ম পরিচালক এর দপ্তর হতে দরপত্র সংগ্রহ করা যাবে। এছাড়াও ঢাকায় প্রধান দপ্তরের পরিচালক এর নিয়ন্ত্রণাধীন ক্যাশ শাখায় দরপত্রের নির্ধারিত অর্থ পরিশোধ পূর্বক বন্দর ও পরিবহন বিভাগ হতে দরপত্র সংগ্রহ করা যাবে।

দরপত্র আহবান করা ঘাট গুলো, বন্দর সেন্ট্রাল খেয়াঘাট, টানবাজার স্কুল ঘাট, নিতাইগঞ্জ মাছুয়াপাড়া ঘাট, কেন্দ্রীয় লঞ্চ টার্মিনাল ঘাট, মাছঘাট, ৫নং খেয়াঘাট, চারারগোপ, হাজীগঞ্জ ফেরীঘাট, মদনগঞ্জ লঞ্চঘাট, সহ জেলার মোট ২৩টি পয়েন্টের জন্য এ দরপত্র আহবান করা হয়েছে।

প্রাক্কলিত মূল্য ৫ লক্ষ টাকার জন্য দরপত্রের নির্ধারিত মূল্য ১ হাজার টাকা, ৫লাখের উর্ধে ১০ লাখ পর্যৗল্প দরপত্রের মূল্য ২ হাজার টাকা, ১০ লাখের উর্ধে ৩০ লাখ পর্যন্ত দরপত্রের মূল্য ৩হাজার টাকা, ৩০ লাখের উর্ধে ৫০ লাখ পর্যন্ত দরপত্রের মূল্য ৪ হাজার টাকা, ৫০ লাখের উর্ধে ১কোটি টাকার নি¤েœ দরপত্রের মূল্য ৫হাজার টাকা ও ১ কোটি টাকা এবং তদুর্ধ্ব ৭হাজার ৫০০ টাকা এবং পরবর্তী প্রতি  ১ কোটি টাকা বা তার অংশ বিশেষের জন্য অতিরিক্ত ২ হাজার টাকা নির্ধারন করা হয়েছে।

টেন্ডারের সিডিউল সংগ্রহের সময় দরদাতার জাতীয় পরিচয়পত্রের ফটোকপি ও মোবাইল নাম্বার প্রদান করে সিডিউল সংগ্রহ করা যাবে। কোন বন্দী, কয়েদী, আসামী টেন্ডারে অংশগ্রহন করতে চাইলে জেল কোড অনুসরন করে টেন্ডারে অংশগ্রহন করতে পারবে।

স্পন্সরেড আর্টিকেলঃ