আজ বুধবার, ২৫শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৮ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ

বদলাচ্ছে সমীকরণ

টি.আই.আরিফ

সংস্কারপন্থী তকমা থাকছে না। আড়াইহাজারে বদলাচ্ছে সমীকরণ। লড়ছেন বিএনপির সাবেক এমপি আতাউর রহমান খাঁন আঙ্গুর। সম্প্রতি ঢাকায় বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতাদের সাথে বৈঠক করতে দেখা গেছে তাকে। গেল সংসদ নির্বাচনেও দলে ডাক পাননি তিনি। এবার নির্বাচনের আগে দলের কেন্দ্রীয় নেতাদের সাথে তিনি মিটিং করায় আনন্দিত তৃণমূল বিএনপির কর্মী সমর্থকরা। তার উপর ভরসা রাখছে অনেকে। যুবদলের সাপোর্ট পাচ্ছেন আঙ্গুর। জেলা বিএনপির আহবায়ক মোহাম্মদ গিয়াস উদ্দিনের সাথে তার সখ্যতা রয়েছে অনেক। বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশারফ হোসেনও তাকে চায়। সুত্রের খবর নারায়ণগঞ্জে ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে যারা সংসদ নির্বাচন করতে ইচ্ছুক তাদেরকে আন্দোলন-সংগ্রামে মাঠে থাকতে নির্দেশ দিয়েছে বিএনপির হাইকমান্ড। বিএনপির ঘোষিত দলীয় কর্মসূচিতে তারাই নেতৃত্বে থাকছেন । গত ১০ ডিসেম্বর ঢাকায় বিএনপির সমাবেশে আড়াইহাজার থেকে বিশাল মিছিল নিয়ে যোগ দিয়েছিলেন আঙ্গুর। দলটির প্রবীন এবং সাবেক নেতাদের আঙ্গুরের পক্ষে দেখা যাচ্ছে। আগামী ১১ জানুয়ারি বিএনপির অবস্থান ধর্মঘট কর্মসূচি সফল করার লক্ষ্যে প্রস্তুতি সভাও করেছেন তিনি। তার প্রতিপক্ষ বিএনপির সহ-আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক নজরুল ইসলাম আজাদও মাঠে। গেল নির্বাচনে বিশাল ব্যবধানে পরাজিত হয় নজরুল ইসলাম আজাদ ।
এবার নির্বাচন ঘিরে আড়াইহাজারে অনেক কথা হচ্ছে। আঙ্গুর সমর্থকরা জানান, আজাদ আড়াইহাজার থানা বিএনপিকে ধ্বংস করার চেষ্টা করছে। অনেক নেতাকে কমিটি থেকে বাদ দিয়েছে। সেই নেতারা এবার তার বিচার করবে।
সম্প্রতি বিএনপির সাবেক এমপি আতাউর রহমান আঙ্গুর সংবাদচর্চাকে বলেন, আড়াইহাজারে এমপি হতে গেলে ভৌগোলিক দিকটা গুরুত্বপূণ। ভৌগোলিক দিক দিয়ে আজাদ সাহেব বেকায়দায়। থানা হতে তার বাড়ি এক কোনায়। আমি মাঝখানে। আমি তিনবার এমপি নির্বাচিত হয়েছি।
তিনি আরও বলেন, জনগণের সাথে তার (আজাদ) সম্পৃক্ততা কম। জনগণ আমাকে চায়। নির্বাচনের পরিবেশ ভালো হলে,দল নির্বাচনে গেলে আমি দলীয় নমিনেশন চাইবো। শেষ পর্যন্ত আমার ভাতিজা আমার পক্ষে থাকবে। আমার কোনো গ্রুপ নাই। আমি আশাবাদী।

স্পন্সরেড আর্টিকেলঃ