১২ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৮শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, বৃহস্পতিবার, সকাল ৮:০১

বজলুর বিরুদ্ধে একাট্টা

নিজস্ব প্রতিবেদক:

ঘনবসতি আর অপরাধ প্রবণ এলাকা হিসেবে পরিচিত চনপাড়ায় জমে উঠেছে ইউপি নির্বাচন । আগামী ১১ নভেম্বর চনপাড়ার ভোট গ্রহণ। এটা কায়েতপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের ৯ নং ওয়ার্ড। এখানে ভোটার প্রায় ২২ হাজার। সুত্রের খবর মেম্বার পদে চনপাড়ায় ৭ জন প্রার্থী মনোনয়ন সংগ্রহ করেছেন। তারা হলেন বর্তমান মেম্বার বজলুর রহমান, চনপাড়া শেখ রাসেলনগর ইউনিয়ন বাস্তবায়ন পরিষদের সভাপতি নুরে আলম মুন, রূপগঞ্জ উপজেলা যুবলীগ সহ-সম্পাদক এসএম শফিকুল ইসলাম জাহিদ, রূপগঞ্জ থানা যুবলীগের সদস্য এসএম ইব্রাহিম, যুবলীগ নেতা খলিলুর রহমান , সাবেক মেম্বার আমিনুল ইসলাম, জহিরুল ইসলাম। এবার অধিকাংশ প্রার্থী শিক্ষিত ও তরুণ । তারা বর্তমান মেম্বারের বিপক্ষে একাট্টা হয়ে শক্তিশালী জনমত গড়ে তোলার চেষ্টা করছেন।

জানা গেছে চনপাড়া শেখ রাসেলনগর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের প্রয়াত সভাপতি আবু তাহেরের ছেলে নুরে আলম মুন । তিনি শিক্ষিত , তরুণ । তারও ভোট ব্যাংক আছে। তার শ^শুর বাড়ি চনপাড়া। তিনি শ^শুর বাড়িরও সার্পোট পাবেন। মাদকের বিরুদ্ধে তার কঠোর অবস্থান রয়েছে। তার বাবার পরিচয়েও তিনি ভোট পাওয়ার সম্ভাবনা আছে।

ক্ষমতাসীন দলের বড় বড় নেতাদের সাথে সু সম্পর্ক রয়েছে এসএম শফিকুল ইসলাম জাহিদ এর । ব্যক্তি হিসেবে তারও জনপ্রিয়তা আছে । তিনি যুবলীগের প্রার্থী হিসেবে পরিচিত পেয়েছেন। বজলুর বিপক্ষ তিনি লড়াই করে টিকে আছেন। তার শক্তিশালী গ্রুপ রয়েছে। কিছু দিন আগে বজলুকে চনপাড়া ছাড়া করেছিলো জাহিদ বাহিনী। জাহিদ বাহিনীতে রয়েছে রাজা, শাহীন। সুত্রের খবর ভোটে বজলু বাহিনী অরাজকতা করতে চাইলে জাহিদ বাহিনী তা প্রতিহত করার চেষ্টা করবে । । শক্তির রাজনীতিতে বজলুর চেয়ে এসএম শফিকুল ইসলাম জাহিদ পিছিয়ে নেই। মাদকের বিরুদ্ধে তার কঠোর অবস্থান রয়েছে। জাহিদকে ঠেকানোর জন্য নানা ষড়ষন্ত্র করেছেন তিনি। তার নামে মামলা দিয়েছে । সবকিছু উপেক্ষা করে জাহিদ মেম্বার পদে লড়ছেন। তিনি মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন।

সুত্রে খবর এসএম ইব্রাহিমকে দলের একটি অংশ সাপোর্ট দিচ্ছে। তাদের একটি প্যানেল তৈরী হয়েছে।

একটি প্রভাবশালী মহলের সমর্থনে প্রার্থী হয়েছেন খলিলুর রহমান। এছাড়া চনপাড়ার সাবেক মেম্বার আমিনুল ইসলামকে প্রার্থী হওয়ার খবর পাওয়া গেছে । সব প্রার্থী শক্তিশালী অবস্থানে রয়েছে। তারা বর্তমান মেম্বারকে ছাড় দিতে নারাজ।

এসব ব্যাপারে নাম প্রকাশে অনইচ্ছুক চনপাড়ার একাধিক আওয়ামী লীগ ও যুবলীগ নেতা বলেন, আওয়ামী লীগের সমর্থন হারাচ্ছে বজলু। তিনি বিএনপি ,জামায়াত ,জাতীয় পার্টির ভরে চলছেন। আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের হয়রানি করেছেন। তার নামে প্লট, সালিশ বাণিজ্যর অভিযোগ আছে। তিনি মাদক ব্যবসায়ীদের সাথে আতাঁত করে চলেন। চনপাড়ায় তিনি সন্ত্রাসের রাজত্ব কায়েক করেছেন। সুষ্ঠু ভোট হলে বজলুর বিদায়ের ঘন্টা বাজবে।

তারা আরও বলেন, বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী স্যারের কাছে আমরা ত্যাগী নেতার মূল্যায়ন চাই।

চনপাড়ার একাধিক বাসিন্দা বলেন, আমরা শিক্ষিত, ভদ্র মেম্বার চাই। মাদক হতে মুক্তি চাই। এলাকার উন্নয়ন চাই।

নাম প্রকাশে অনইচ্ছুক এক মেম্বার প্রার্থী বলেন, আমরা ভোট প্রদানের সুন্দর পরিবেশ চাই। বজলু ও তার ক্যাডার জয়নাল চনপাড়াকে অস্থির করার চেষ্টা করছে।

Facebook Notice for EU! You need to login to view and post FB Comments!

স্পন্সরেড আর্টিকেলঃ