আজ সোমবার, ১১ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

মুক্তিযোদ্ধারা সবসময় হিরো :পাপ্পা গাজী

নিজস্ব প্রতিবেদক:

বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী বীর প্রতীকের জ্যেষ্ঠপুত্র ও বিসিবির পরিচালক গাজী গোলাম মর্তুজা পাপ্পা বলেছেন, আজকে বিএনপি নেতারা অনেক বড় বড় কথা বলে। সারা বছর বিএনপির খবর থাকে না। নির্বাচন আসলে বিএনপি নেতাদের দেখা যায়। মানুষের মধ্যে হিংসা ,বিবেদ সৃষ্টি করাই তাদের কাজ। আমরা সত্যের পথে আছি, সত্যের পথে থাকবো, যদি ভুল হয় ক্ষমা চাইবো কিন্তু সত্যকে মিথ্যায় পরিণত করবো না।

শনিবার ( ১২ মার্চ) বিকালে ভুলতা স্কুল এন্ড কলেজে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

মন্ত্রীপুত্র বলেন, আমি একজন খেতাব প্রাপ্ত বীর মুক্তিযোদ্ধার সন্তান। শাহরুখ খান আমার কাছে হিরো না, আমার কাছে বীর মুক্তিযোদ্ধারা হিরো। এই মাটি যতদিন থাকবে তারা সবসময় হিরো থাকবে। বীর মুক্তিযোদ্ধারা আমাদের অনুপ্রেরণা। বঙ্গবন্ধুর ডাকে তারা যুদ্ধ করে এ দেশ স্বাধীন করেছে। বঙ্গবন্ধু আমাদের পরিচয় শিখিয়ে দিয়েছেন। তিনি একাত্তর সালের ৭ মার্চ তার ঐতিহাসিক ভাষণ বলেছিলেন আমি মানুষ, আমি বাঙালি, আমি মুসলমান।

তিনি বলেন, বাঙালিরা বাঘের জাত। বাঘ আমাদের এই বাংলায় আছে। বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে এ দেশের মানুষ বাঘের মতো গর্জে উঠেছিলো। বঙ্গবন্ধুর পরে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মান দিতে হবে।

রূপগঞ্জে আওয়ামী রাজনীতির ভবিষ্যত কান্ডারি গাজী গোলাম মর্তুজা পাপ্পা বলেন, স্বাধীনতা কি সেটা নতুন প্রজন্মকে জানাতে হবে। আমরা এখন স্বাধীন দেশের নাগরিক। আমরা স্বাধীনতার মর্মটা বুঝি না। যারা ১৯৭১ সালের আগের মানুষ তারা বোঝে স্বাধীনতার মর্মটা কি । আমাদের স্বাধীনতা একদিনে আসে নাই। আমাদের স্বাধীনার জন্য বঙ্গবন্ধু ২৪ বছর লড়াই সংগ্রাম করেছেন । বছরের পর বছর তিনি কারাবরণ করেছেন । তারপর তিনি আমাদের স্বাধীন দেশ উপহার দিয়েছেন। জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ এগিয়ে যাচ্ছে।
সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন রূপগঞ্জ উপজেলা মাধ্যমিক বিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি আব্দুল আউয়াল মোল্লা। এসময় রূপগঞ্জ উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান সোহেল আহমেদ ভুঁইয়া, বীর মুক্তিযোদ্ধা আমির হোসেন, গোলাকান্দাইল ইউপি চেয়ারম্যান কামরুল হাসান তুহিন, ভুলতা ইউপি চেয়ারম্যান ব্যারিষ্টার আরিফুল হক ভুঁইয়া, রূপগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান শাহিন, রূপগঞ্জ উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি মাহবুবুর রহমান মেহের, সাধারণ সম্পাদকক নাঈম ভুঁইয়া, রূপগঞ্জ উপজেলা মহিলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক শীলা রাণি পাল, শিক্ষক শামীমা সুলতানা উমা অনেকে উপস্থিত ছিলো।

পরে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের মধ্যে নগদ অর্থ, সম্মাননা পদক ও পুরষ্কার এবং মহান মুক্তিযুদ্ধ ও বঙ্গবন্ধুর জীবনভিত্তিক চিত্রাংকন, কবিতা আবৃতি, রচনা প্রতিযোগিতায় বিজয়ী শিক্ষার্থীদের হাতে পুরষ্কার তুলে দেওয়া হয়।

স্পন্সরেড আর্টিকেলঃ