আজ বুধবার, ১১ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২৪শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

পাকিস্তানে সরকার গঠনে দুই দলের মতৈক্য

অনলাইন ডেস্ক:
অবশেষে পাকিস্তানে কেন্দ্রীয় সরকার গঠনে একমত হয়েছে পাকিস্তান মুসলিম লিগ-নওয়াজ (পিএমএল-এন) ও পাকিস্তান পিপলস পার্টি (পিপিপি)। নতুন এ সরকারের প্রধানমন্ত্রী হবেন পিএমএল-এন নেতা শাহবাজ শরিফ। আর প্রেসিডেন্ট হবেন পিপিপির কো-চেয়ারম্যান আসিফ আলী জারদারি।

দেশটির জিও টিভি বলছে, মঙ্গলবার (২০ ফেব্রুয়ারি) রাতে ইসলামাবাদে জারদারির বাসভবনে যৌথ সংবাদ সম্মেলনে পিপিপি চেয়ারম্যান বিলাওয়াল ভুট্টো-জারদারি এ ঘোষণা দেন। ফলে ৮ ফেব্রুয়ারির নির্বাচনে কোনো দল একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা না পাওয়ায় সরকার গঠনে সৃষ্ট অনিশ্চয়তা কাটল।

এদিন বিলাওয়াল বলেন, ‘পিপিপি এবং পিএমএল-এন প্রয়োজনীয় সংখ্যক আসন অর্জন করেছে এবং এখন আমরা সরকার গঠনের অবস্থানে আছি। পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই) ও সুন্নি ইত্তেহাদ কাউন্সিল কেন্দ্রে সরকার গঠনের মতো সাধারণ সংখ্যাগরিষ্ঠতা পায়নি।’
তার কথায়, পিপি ও পিএমএল-এন জোট সরকার গঠন করতে যাচ্ছে। পিএমএল-এন নেতা শাহবাজ শরিফ আবারও দেশের প্রধানমন্ত্রী হবেন।

সংবাদ সম্মেলনে শাহবাজ শরিফ বলেন, আসিফ আলি জারদারিকে পরবর্তী পাঁচ বছরের জন্য প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রয়োজনীয় ভোট তাদের আছে। এ সময় মুত্তাহিদা কওমি মুভমেন্ট-পাকিস্তানসহ অন্য মিত্র দলগুলোকেও ধন্যবাদ জানান তিনি।

এদিকে পিএমএল-এন ও পিপিপির সরকার গঠনের কড়া সমালোচনা করেছে সাবেক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের দল পিটিআই। এই সরকারকে বিগত পাকিস্তান ডেমোক্রেটিক মুভমেন্ট (পিডিএম) জোট সরকারের দ্বিতীয় মেয়াদ বলে উল্লেখ করেছে দলটি।

স্পন্সরেড আর্টিকেলঃ