আজ রবিবার, ৩০শে শ্রাবণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৪ই আগস্ট, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

পরকীয়া করতে গিয়ে ধরা পড়ল ছাত্রলীগ সেক্রেটারী

নিজস্ব প্রতিবেদক:

পটুয়াখালী দশমিনা উপজেলা ছাত্রলীগ সেক্রেটারী হাসান সন্ন্যামত (সেরনিয়াবাত) এক তরুনীর সঙ্গে পরকীয়া করতে গিয়ে এলাকাবাসীর হাতে ধরা পড়েছে।

বৃহস্পতিবার ( ৯ ডিসেম্বর) রাতে বেতাগী গ্রামে ওই তরুনীর বাসায় যান হাসান সন্ন্যামত । এ সময় এলাকাবাসীর হাতে ধরা পড়েন তিনি। আটক ওই ছাত্রলীগ সেক্রেটারীর বাড়ি একই গ্রামে। পরে এলাকাবাসীর চাপের মুখে ওই তরুণীকে বিয়ে করতে বাধ্য হন তিনি।

স্থানীয়রা জানান, ৪ বছর আগে ওই তরুণীর পটুয়াখালি সদরে এক সরকারী চাকুরিজীবীর সাথে বিবাহ হয়। পরবর্তীতে হাসান সন্ন্যামত ওরফে সেরনিয়াবত ওই মেয়েকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ফুসলিয়ে তার স্বামীকে ডিভোর্স দেয়ায়। দীর্ঘদিন হাসান ওই তরুণীর সাথে পরকীয়া প্রেম চলছিলো । পূর্ব আলোচনা অনুযায়ী বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার পরে হাসান সন্ন্যামত ওরফে নব্য সেরনিয়াবাত ওই তরুণীর কাছে যায় এবং তরুণীকে তার সাথে চলে আসতে বলে কিন্তু তরুণী কিসের ভিত্তিতে যাবে এটা বললে বাঁধে বিতন্ডা, একে একে পাড়া প্রতিবেশী সবাই উপস্থিত হয়। খবর পেয়ে উপজেলা ছাত্রলীগ সেক্রেটারী হাসান সন্ন্যামত (সেরনিয়াবত) এর আত্মীয় স্বজন উপস্থিত হলে কাজী ডেকে ১০ লক্ষ টাকা কাবিনের বিনিময়ে রাতে বিয়ে পড়ানো হয়। এর আগে দশমিনায় উপজেলা ছাত্রলীগ সম্পাদকের হাতে লাঞ্চিত হয় বিয়ের কাজী মাওলানা মোঃ খলিলুর রহমান।

স্পন্সরেড আর্টিকেলঃ