আজ বুধবার, ১৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৩০শে নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

‘পদ বাণিজ্য, কমিটি আসেনি’

টি.আই.আরিফ:

রূপগঞ্জ থানা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক পদ ১০ লাখ টাকা বিক্রি ! সুত্রের খবর রাজধানীর নয়াপল্টনে পাথর সমিতির অফিসে এই পদ বিক্রি হয়। অর্থ নিয়ে এক নেতাকে রূপগঞ্জ থানা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক করা হয়। যিনি পদ বাণিজ্য করেছেন তিনি জেলা বিএনপির প্রথম সারির এক নেতা।

এছাড়া বিতর্কিতদের কমিটিতে রাখা হয়েছে। রূপগঞ্জ থানা বিএনপি এখন চার ভাগে বিভক্ত। তার মধ্যে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য মোস্তাফিজুর রহমান দীপু ভূঁইয়া ও সাবেক জেলা বিএনপির সভাপতি কাজী মনিরুজ্জামানের অনুগতরা থানা বিএনপির অধিকাংশ পদ ভাগিয়ে নিয়েছেন। সুত্রের খবর দীপু ভুইয়ার কর্মচারী রূপগঞ্জ থানার বিএনপির ১ নং সদস্য। তা নিয়ে রূপগঞ্জ বিএনপিতে নানা কথা।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক জেলা বিএনপির এক নেতা সংবাদচর্চাকে বলেন, প্রায় এক মাস হয়েছে রূপগঞ্জ থানা বিএনপির আহবায়ক কমিটি। সেই কমিটি এখনো রূপগঞ্জে আসেনি। তারা রূপগঞ্জের মাটিতে কমিটি পরিচিতি সভা করতে পারেনি। নয়াপল্টনে অধ্যাপক মামুন মাহমুদের পাথর সমিতির অফিসে তারা কমিটি
পরিচিতি সভা করেছে।
তিনি আরও বলেন, রূপগঞ্জ থানা বিএনপির আহবায়ক কমিটিতে বিতর্কিত লোক ডুকেছে। একজন টাকা দিয়ে খালি বড় পদ ভাগিয়ে নেয়। এবারও একটি যুগ্ম আহবায়ক পদ প্রায় ১০ লাখ টাকা বিক্রি হয়েছে। যিনি পদ বিক্রির সাথে জড়িত তার নাম বলা যাবে না। নতুন কমিটিতে রূপগঞ্জ থানা বিএনপি এখন ঘুরে দাঁড়ানো তো দূরের কথা আরও বেশি নিষ্ক্রিয় হচ্ছে।

উল্লেখ্য গেল ২০ জানুয়ারি জেলা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত আহবায়ক আলহাজ¦ নাসির উদ্দিন ও সদস্য সচিব অধ্যাপক মামুন মাহমুদ রূপগঞ্জ থানা বিএনপির ৩১ সদস্য বিশিষ্ট আহবায়ক কমিটি অনুমোদন দিয়েছেন । কমিটির সদস্যরা হলেন আহবায়ক এড. মাহফুজুর রহমান হুমায়ুন, যুগ্ম আহবায়ক শরীফ আহমেদ টুটুল, আশরাফুল হক রিপন , আবু সাদাত সায়েম , হাজী মো: সেলিম, এড. গোলজার হোসেন, এড.কাজী রেজাউল হক, আলহাজ¦ মো: মোস্তফা কামাল, মাহাবুবুর রহমান, আব্বাস উদ্দিন ভুঁইয়া, আব্দুল আজিজ মাস্টার, সদস্য সচিব মো: বাছির উদ্দিন বাচ্চু, সদস্য বাকির হোসেন (দীপুর কর্মচারী) , মোশারফ হোসেন, দুলাল হোসেন, এড. মাহমুদুল আহসান খোঁকা, মো: হারুন মিয়াজি, গোলাম মোস্তফা, এড. হেলাল উদ্দিন সরকার, হুমায়ুন কবির ভুঁইয়া, হাজী আব্দুল মতিন, মো: শহিদুল্লাহ ,রমিজ উদ্দিন, মনির হোসেন মেম্বার, হাবিবুর রহমান বাবুল, মজিবুর রহমান মোল্লা, মো: সানাউল্লাহ ,জাহিদ হাসান ইমন, মো: আব্দুল জলিল, রজব আলী ফকির, মোঃ নুরুল্লাহ মোল্লা। তাদেরকে ৪৫ দিনের মধ্যে ওয়ার্ড ও ইউনিয়নের সম্মেলন সমাপ্ত করে থানা সম্মেলনের তারিখ জানানোর নির্দেশ দিয়েছে জেলা কমিটি। এখন দেখার অপেক্ষা রূপগঞ্জ থানা বিএনপির নতুন আহবায়ক কমিটি কতটা সফল হয়।

স্পন্সরেড আর্টিকেলঃ