আজ মঙ্গলবার, ৮ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২৩শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

‘নেত্রীর নির্দেশ পালন করে যাচ্ছি’

সংবাদচর্চা রিপোর্ট:

রূপগঞ্জে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা প্রাথমিক বিদ্যালয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের (উপজেলা পর্যায়) ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত ২৩ জুলাই শনিবার মুড়াপাড়া কলেজ মাঠে আয়োজিত বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট ফাইনাল খেলায় গন্ধর্বপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়কে টাইব্রেকারে ২-১ গোলে হারিয়ে পাবই সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় জয় লাভ করে। পাবই সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পক্ষে সেতু ও তাসলিমা গোল করে। বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টে রূপগঞ্জ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়কে ০-১ গোলে হারিয়ে দড়িকান্দী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় জয় লাভ করে । দলের পক্ষে আবু ছালেক গোল করে।
রূপগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার শাহ্ নুসরাত জাহানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন স্থানীয় সাংসদ ও বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী বীর প্রতীক। বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধুর প্রিয় খেলা ছিলো ফুটবল। তিনি পাকা খেলোয়াড় ছিলেন। রাজনীতিতেও তিনি পাকা ছিলেন। বঙ্গবন্ধু কখনো হারেনি। তিনি সমগ্র বাঙালি জাতিকে ঐক্যবদ্ধ করেছিলেন। তিনি আমাদের স্বাধীন দেশ উপহার দিয়েছেন। বঙ্গবন্ধু জীবন দিয়ে প্রমাণ করেছেন তিনি বাঙালিদের কত ভালোবেসেছেন। বঙ্গবন্ধুর নাম বাঙালিদের হৃদয় থেকে মুছে ফেলা যাবে না। তিনি অমর হয়ে আছেন। বঙ্গমাতা ছিলেন বঙ্গবন্ধুর প্রেরণার উৎস।

তিনি বলেন, যুব সমাজকে মাদক থেকে রক্ষা করতে হলে খেলাধুলার বিকল্প নেই। বঙ্গবন্ধুর কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা খেলাধুলার জন্য বিশেষ উদ্যোগ নিয়েছেন। তার নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। দেশের খেলাধুলা আরও এগিয়ে যাবে। খেলাধুলায় উৎসাহ এবং সহযোগিতা করতে সমাজের বিত্তবান, জনপ্রতিনিধিসহ সমাজের সবাইকে এগিয়ে আসার আহবান জানাচ্ছি।
গোলাম দস্তগীর গাজী আরও বলেন, যতদিন আমি বেচে থাকব ততদিন রূপগঞ্জবাসীর জন্য আমি ও আমার পরিবার কাজ করে যাবে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আমাকে এই এলাকায় দায়িত্ব দিয়েছেন। তিনি আমাকে মন্ত্রীও বানিয়েছেন। নেত্রীর নির্দেশ পালন করে যাচ্ছি। আপনারা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর দিকে খেয়াল রাখবেন। শেখ হাসিনা বেচে থাকলে দেশের মানুষ অনেক কিছু পাবে। জনগণের সুযোগ সুবিধা ডাবল হবে।

অনুষ্ঠানে রূপগঞ্জ উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার বীরমুক্তিযোদ্ধা আমানউল্লাহ আমান, মুড়াপাড়া সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যক্ষ হাফিজুর রহমান, রূপগঞ্জ উপজেলা শিক্ষা অফিসার জাহেদা আখতার, মুড়াপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ¦ তোফায়েল আহমেদ আলমাছ, কায়েতপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান মোঃ বজলুর রহমান, রূপগঞ্জ উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শীলা রাণী পাল, রূপগঞ্জ উপজেলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি আব্দুর রহিম, সাধারণ সম্পাদক হাজী মোঃ আলী ওসমান, ভুলতা স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ ড. আব্দুল আউয়াল মোল্লা, রূপগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি আলহাজ¦ মোঃ তাবিবুল কাদির তমাল, রূপগঞ্জ উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান শাহিন, শিক্ষক নেতা রতন লাল দেবনাথ, শাহনাজ পারভীন সহ অনেকে উপস্থিত ছিলেন।
পরে বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী বীর প্রতীক বিজয়ীদের মধ্যে গোল্ডকাপ তুলে দেন।

স্পন্সরেড আর্টিকেলঃ