১৪ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৯শে নভেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, সোমবার, ভোর ৫:৩২

‘নাওড়ার সানগ্লাস আপনাদের কমান্ডার ইন চিফ না’

নবকুমার:

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের পরিচালক গাজী গোলাম মর্তুজা পাপ্পা বলেছেন, জার্মান চ্যান্সেলর হয়ে হিটলার প্রথম তার নিজ জন্মভূমিতে বোমা ফাটিয়েছিলেন । আজকে আপনি চেয়ারম্যান হয়ে নাওড়া দখল করে রেখেছেন। কায়েতপাড়ায় নৌকা মার্কার জোয়ার এসেছে। ঘরের ছেলেরা ঘরে ফিরে এসেছে। তাদেরকে বাধা দেবেন না। তাদেরকে বলবেন না নৌকার সাথে ষড়যন্ত্র করতে। আমরা জন্মের পর থেকে নৌকা করি। আপনাদের মতো দুই হাজার বারো সাল থেকে নৌকা করি না। শুনলাম আপনারা নৌকার বিরুদ্ধে দাঁড়াবেন , তাহলে আপনারা নৌকা করলেন কবে? আমি কারো গীবত করতে চাই না। আল্লাহ্ আপনাদের হেদায়েত দিক। কায়েতপাড়াবাসীর কাছে মাফ চান , আল্লাহ্ আপনাদের ক্ষমা করেদিক।
দলীয় নেতাকর্মীদের উদ্দেশে মন্ত্রীপুত্র বলেন , আমাদের আওয়ামী লীগের ঘরের সন্তান যারা আছেন ,তাদের অনেককে তারা আটকে রেখেছে। আমি আপনাদেরকে অনুরোধ করবো আমাদের কমান্ডার ইন চিফ জননেত্রী শেখ হাসিনা, অন্য কেউ না। এই নাওড়ার সানগ্লাস কিন্তু আপনাদের কমান্ডার ইন চিফ না। নেত্রী সই করে নৌকা মার্কা দিয়ে আলহাজ¦ জাহেদ আলীকে পাঠিয়েছেন আমাদের কাছে। এখন আমাদের একমাত্র দায়িত্ব নৌকাকে বিজয়ী করে নেত্রীর হাতকে শক্তিশালী করা।
পাপ্পা গাজী বলেন, আপনারা একটা জিনিস পারেন সেটা হচ্ছে মামলা। মামলায় যদি গ্নিসবুকে রেকর্ড হয় আপনার নাম থাকবে সবার উপরে। যদি সৎ সাহস থাকে গুন্ডা ছাড়া হেটে বেড়ান। যদি আপনারা আওয়ামী লীগ করেন , বঙ্গবন্ধুর রাজনীতিকে বিশ^াস করেন , জননেত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশ মান্য করেন তাহলে কায়েতপাড়ায় নৌকাকে বিজয়ী করবেন।

গতকাল কায়েতপাড়া ইউনিয়নের বিভিন্ন দুর্গা পূজা মন্ডপ পরিদর্শন অনুষ্ঠানে গাজী গোলাম মর্তুজা পাপ্পা এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, দুর্গা উৎসব সারা বাংলার ঐতিহ্যবাহী উৎসব। কেউ ভয় পাবেন না। নির্ভিগ্নে উৎসব পালন করুন। আমরা আপনাদের পাশে আছি।

এসময় কায়েতপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী আলহাজ্ব মোঃ জাহেদ আলী, রূপগঞ্জ উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগ সভাপতি মাহাবুবুর রহমান মেহের , আওয়ামী লীগ নেতা মতিউর রহমান আকন্দ, আলহাজ¦ তাবিবুল কাদির তমাল, শ্রী রবি রায়, রূপগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মাছুম চৌধুরী অপু, মোকলেছুর রহমান জনি, সুব্রত, মুড়াপাড়া কলেজ ছাত্র সংসদের সাবেক এজি এস সোহাগ, রূপগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ফয়সাল আলম সিকদার, রূপগঞ্জ উপজেলা মহিলা লীগ সাধারণ সম্পাদক সেলিনা আক্তার রিতা, সাবেক স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা মহিউদ্দিন, কায়েতপাড়া ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি ইকবাল, সাধারণ সম্পাদক রাসেল আহমেদ, কায়েতপাড়া স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি আলমগীর হোসেন, সাধারণ সম্পাদক নাজমুল খন্দকার জয়, কায়েতপাড়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি ওমর ভুইয়া, সাধারণ সম্পাদক নাদিম হোসেন অপু , যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক তৌকির আহমেদ, ছাত্রলীগ নেতা রাকিব, মিরাজ,রিয়াজসহ অনেকে উপস্থিত ছিলেন।

একইদিন বিকালে গাজী গোলাম মর্তুজা পাপ্পা মুড়াপাড়ায় বিভিন্ন পূজা মন্ডপ পরিদর্শন করেন। এসময় তিনি বলেন, মুড়াপাড়ায় এবার যারা মনোনয়ন প্রত্যাশী ছিলেন তাদের সবার চেয়ারম্যান হওয়ার যোগ্যতা আছে। তার মধ্যে থেকে আমরা একজনকে বেছে নিয়েছি।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, মুড়াপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সমর্থিত চেয়ারম্যান প্রার্থী তোফায়েল আহমেদ আলমাছ, আওয়ামী লীগ নেতা আজমত আলী, বরকত চেয়ারম্যান, জব্বার মেম্বার, মনির হোসেন, উপজেলা যুবলীগ সভাপতি কামরুল হাসান তুহিন, রূপগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক শেখ ফরিদ ভুঁইয়া মাছুম, সাবেক ছাত্রলীগ নেতা ইঞ্জিনিয়ার খালেদ হাসান, এম এ সাঈদ সোহেল, যুবলীগ নেতা হাজী ফজল মিয়া, মুড়াপাড়া কলেজ ছাত্র সংসদের ভিপি সাইফুল ইসলাম তুহিন, জি এস সাদিকুল ইসলাম সজিব প্রমুখ।

Facebook Notice for EU! You need to login to view and post FB Comments!

স্পন্সরেড আর্টিকেলঃ