১০ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৪শে জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ, সোমবার, সন্ধ্যা ৭:২৫

‘নতুন ইউএনওকে নিয়ে খুব চিন্তা ’

নিজস্ব প্রতিবেদক:

নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য শামীম ওসমান বলেছেন, নতুন ইউএনওকে নিয়ে খুব চিন্তা হচ্ছে। অনেকদিন পরে একজন পুরুষ ইউএনও আসছে। আগের ইউএনও তিনজনই মহিলা ছিলো। মধ্য খানে আপনি আছেন। কেন আসছেন আমি জানি না, কারণ উনাদের কাছে কেউ আসলে , উনারা ( মহিলা ইউএনও) যখন কাজটা করবে না তখন একটা মিষ্টি হাসি দিয়ে বলেছে ভাই পরে আইসেন। মানুষ খুশি হয়ে চলে গেছে। আপনার হাসিতে ,আমার হাসিতে কোন কাজ হবে না। আমার এবং আপনার দুইজনের জীবন এক, কাজ টা করতে হবে, এ ছাড়া কোন পথ নাই। আপনার জন্য চ্যালেঞ্জ বেশি আছে। আমি বিশ^াস করি আপনে আপনার চ্যালেঞ্জকে মোকাবেলা করবেন।

তিনি বলেন, এই করোনার সময় আমরা মানুষ চিনেছি, সেই কথাটা কিন্তু ভুইলেন না সবাই। অনেকে বাবার লাশ ঘরে রেখে দিয়েছে, ধরে নাই। আবার অনেক দূরের মানুষ ছুঁটে আসছে।

নারায়ণগঞ্জের কিছু দৃশ্য আমি দেখেছি, অনেকের বাবার লাশ ঘরে পড়ে ছিল, ছেলে ধরে নাই। গিটারিস্ট একটা ছেলে সারারাত মরে বাহিরে পড়ে ছিল, কেউ লাশটি উঠিয়ে নেয় নাই। গলাচিপায় লাশ হয়ে পড়ে আছে স্বামীর, স্ত্রী বলছে- ভাই লাশটা নিয়ে যান, নিয়ে যান। সাথে তোশকটাও নিয়ে যান। আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেন।

তিনি আরও বলেন, আবার এটাও ঠিক, নিয়ে গেছে যারা, তারাও অন্য বাবার ছেলে। তাদের মধ্যে প্রশাসনের লোক আছে, আওয়ামী লীগের লোক আছে, বিএনপির লোকেরাও কাজ করেছে। এটাই থেকে যাবে দুনিয়াতে। এবং এটার জন্যই দুনিয়াতে আসছি। বড় অফিসার হওয়া বড় কথা না, পৃথিবীতে বড় কথা হচ্ছে- ভালো মানুষ হওয়া।
গতকাল তিনি সদর উপজেলার ইউএনও’র বিদায় ও নবগত ইউএনও’র বরণ সংর্বধনা অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন।

অনুষ্ঠানে শামীম ওসমান ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ জেলা মহিলা সংস্থার চেয়ারম্যান সালমা ওসমান লিপি, নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলা বিদায়ী নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আরিফা জহুরা, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. রিফাত ফেরদৌস, উপজেলা চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ফাতেমা মনির, কুতুবপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মনিরুল আলম সেন্টু, গোগনগর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ফজর আলী প্রমুখ।

Facebook Notice for EU! You need to login to view and post FB Comments!

স্পন্সরেড আর্টিকেলঃ