১২ই কার্তিক, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৮শে অক্টোবর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, বৃহস্পতিবার, সকাল ৯:০৩

দেবরের বিপক্ষে মাঠে ভাবি

নবকুমার:

শামীমা সুলতানা ঝিঁনুর স্বামী হারুনুর রশিদ ভূঁইয়া ছিলেন ভুলতা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান। তার স্বামী মারা যাওয়ার পর তার দেবর ব্যারিস্টার আরিফুল হক ভুঁইয়া একই ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হয়। দেবর চেয়ারম্যান হওয়ার পর তাদের পারিবারিক দ্বন্দ্ব বেড়ে যায়। তৈরী হয় আলাদা বলয়। এখনো বাড়ছে তাদের দূরত্ব। তারা একজন আরেকজনকে ছাড় দিতে নারাজ। তাদের দুই জনের পক্ষে- বিপক্ষে নানা কথা হচ্ছে। স্থানীয় আওয়ামী লীগের সিনিয়র নেতারা প্রার্থী না হওয়ায় এবার দেবর -ভাবির মধ্যে লড়াই হচ্ছে। আগামী ১১ নভেম্বর ভুলতা ইউনিয়ন পরিষদ সাধারণ নির্বাচনের ভোট গ্রহণ। ইতোমধ্যে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ দলীয় মনোনয়ন ফরম সংগ্রহের আহবান জানিয়েছে। এবার বর্তমান চেয়ারম্যান ব্যারিস্টার আরিফুল হক ভুঁইয়ার বিপক্ষে একাট্টা হয়ে মাঠে নেমেছেন তার আপন ভাবি শামীমা সুলতানা ঝিঁনু। তিনি বিভিন্ন ওয়ার্ডে উঠান বৈঠক এবং গণসংযোগ করছেন। তাতে অনেক লোকের সমাগম লক্ষ্য করা যাচ্ছে। দেবরের বিরুদ্ধে তিনি জনমত গড়ে তুলছেন। সুত্রের খবর তফসিল ঘোষণা পর আরিফুল হকও লবিং করেছেন। তিনি ভাবির বিরুদ্ধে বলয় তৈরী করছেন। তাদের দ্বন্দ্বে এবার নৌকা জিতবে তো? এ প্রশ্ন তৃণমূল আওয়ামী লীগ কর্মীদের। তৃণমূল থেকে দাবি উঠছে দলের ত্যাগী নেতাকে মনোনয়ন দেওয়ার । এখন দেখার অপেক্ষা এবার ক্ষমতাসীন দলের মনোনয়ন কে পায়।

এদিকে দীর্ঘদিন পারিবারিক ঐতিহ্যের উপর ভর দিয়ে চলছে ভুলতা ইউনিয়নের রাজনীতি, যা কিনা ভবিষ্যৎ আওয়ামী লীগের সংগঠনকে হুমকির মুখে ফেলবে বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা।

উল্লেখ্য মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ তারিখ ১৭ অক্টোবর, মনোনয়নপত্র বাছাই ২০ অক্টোবর, প্রার্থিতা প্রত্যাহার ২৬ অক্টোবর, প্রতীক বরাদ্দ ২৭ অক্টোবর।

স্পন্সরেড আর্টিকেলঃ