১৪ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৯শে নভেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, সোমবার, সকাল ৮:৫৪

দুই একটা পরিবর্তন হতে পারে

নিজস্ব প্রতিবেদক:

ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে ঘিরে আড়াইহাজারে সরব হয়েছে চেয়ারম্যান প্রার্থীরা। আগামী ডিসেম্বর মাসের মধ্যে আড়াইহাজার উপজেলার ১০ টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন সম্পন্ন হওয়ার কথা রয়েছে। সেই লক্ষ্যে কাজ করছে ইসি। ইউনিয়ন পরিষদগুলোর মধ্যে রয়েছে সাতগ্রাম, দুপ্তারা, বাহ্মন্দী, ফতেপুর, বিশনন্দী , মাহামুদপুর, হাইজাদী, উচিৎপুরা, খাগকান্দা, কালাপাহাড়িয়া। আড়াইহাজারে বর্তমান জনপ্রতিধিদের প্রভাব অনেক বেশি। সুত্রের খবর এসব ইউনিয়নে দুই একজন চেয়ারম্যানকে এবার পরিবর্তন করা হতে পারে। তার মধ্যে আলোচনায় আছে দুপ্তারা , বাহ্মন্দী, কালাপাহাড়িয়া। দুপ্তারায় ক্ষমতাসীন দলের একজন প্রভাবশালীর ভাইকে প্রার্থী করা হতে পারে। ইতোমধ্যে উনি প্রচারণাও চালাচ্ছেন। বাহ্মন্দী ইউনিয়নে বর্তমান চেয়ারম্যান লাক মিয়ার বিপক্ষে মাঠে নেমেছেন প্রবীন আওয়ামী লীগ নেতা আনোয়ার আলী।

আড়াইহাজারে ইউপি নির্বাচনে বিএনপি অংশ না নিলেও তাদের স্বতন্ত্র প্রার্থী থাকতে পারে। সুত্রের খবর প্রত্যেকটা ইউনিয়নে বর্তমান চেয়ারম্যান পুনরায় নির্বাচিত হওয়ার জন্য নানা লবিং ও চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

স্থানীয় জনগণ ও ক্ষমতাসীন দলের একাধিক নেতা এই প্রতিবেদককে জানান, এমপি সাহেব যাকে সমর্থন করবে সেই নৌকা প্রতীক পাবে ।

গত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে একাধিক প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় বিজয়ী হয়েছিলো। তারা হলেন ফতেপুর ইউনিয়নে মো. আবু তালেব মোল্লা, মাহমুদপুর ইউনিয়নে মো. আমান উল্যাহ, কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়নে সাইফুল ইসলাম স্বপন মিয়া, উচিৎপুরা ইউনিয়নে মো. নাজিম মোল্লা, ব্রাহ্মন্দী ইউনিয়নে মো. লাক মিয়া, দুপ্তারা ইউনিয়নে শাহিদা মোশারফ, হাইজাদী ইউনিয়নে মো. আলী হোসেন , সাতগ্রামে ইউনিয়নে মো. ওয়াদুদ মাহমুদ। এসব ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে এবারও ভোট গ্রহণ হবে কিনা তা নিয়ে সন্দেহ আছে জনমনে। যেসব চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে দুর্নীতি, অনিয়ম, আধপিত্য বিস্তারসহ গ্রুপিংয়ের অভিযোগ রয়েছে তারা এবার দলীয় টিকেট নাও পেতে পারে। ইতোমধ্যে কিছু ইউনিয়ন ক্ষমতাসীন দলের একাধিক প্রার্থীর নাম শোনা যাচ্ছে। নতুন মনোনয়ন প্রত্যাশীরা মনোনয়ন পাবে কিনা তা নিয়েও সন্দেহ আছে।

একই ব্যক্তিকে ডাবল ওয়ারিশ সার্টিফিকেট প্রদানসহ নানা অভিযোগে গত ২৩ আগস্ট সাতগ্রাম ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ওয়াদুদ মাহমুদকে সাময়িক ভাবে বরখাস্ত করে স্থানীয় সরকার মন্ত্রনালয়। পরে তা প্রত্যাহার করা হয়েছে। এ ইউনিয়নে এবার দলীয় মনোনয়ন চায় আড়াইহাজার উপজেলা যুবলীগ সহ সভাপতি আমির হোসেন। আরও প্রার্থী বাড়তে পারে। কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম স্বপনরে বিরুদ্ধে আধপিত্য বিস্তারসহ গ্রুপিংয়ের অভিযোগ রয়েছে। সন্ত্রাস প্রবন এ ইউনিয়নে শান্তিপূর্ণ ভোট গ্রহণ করা কঠিন কাজ। সুত্রের খবর কালাপাহাড়িয়ায় জোর যার গর্দি তার।

উল্লেখ্য আড়াইহাজার বাদে নারায়ণগঞ্জ জেলার সব উপজেলার ইউপি নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হয়েছে। অপেক্ষায় রয়েছে আড়াইহাজারের প্রার্থীরা।

Facebook Notice for EU! You need to login to view and post FB Comments!

স্পন্সরেড আর্টিকেলঃ