আজ বুধবার, ১৫ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২৯শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

দিদির রেকর্ড

অনলাইন ডেস্ক:

ভবানিপুর উপনির্বাচনে বিপুল ভোটে জয়ী হলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। গত মে মাসে বিধানসভা নির্বাচনে জিতে তাঁর দল রাজ্যে ক্ষমতায় এলেও মমতা নিজে বিধায়ক হিসেবে নির্বাচিত হননি। দল বিপুল ভোটে জয়লাভ করার পর ৫ মে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেন তৃণমূলনেত্রী।

তবে শপথের মেয়াদ ৪ নভেম্বর শেষ হচ্ছিল মমতার। তার আগেই উপনির্বাচনের দিন ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন। নিজের পুরনো কেন্দ্র ভবানিপুরেই প্রার্থী হন মমতা। তাঁর বিরুদ্ধে বিজেপি প্রার্থী ছিলেন প্রিয়াঙ্কা টিবরেওয়াল এবং সিপিএম প্রার্থী শ্রীজীব বিশ্বাস। ৩০ সেপ্টেম্বর ভোট হয়। ভোটের ফল প্রকাশ হয় ৩ অক্টোবর। ৫৮ হাজার ৮৩২ ভোটের ব্যবধানে জয়ী হলেন মমতা। ভবানীপুরে জয়ের হ্যাটট্রিক মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। ২০২১-এর বিধানসভা ভোটে ভবানীপুরের তৃণমূল প্রার্থী শোভনদেব চট্টোপাধ্যায়ের দ্বিগুণ ব্যবধানে জয়। ২০১১-র উপনির্বাচনের জয়ের ব্যবধানকেও ছাপিয়ে গেলেন মমতা। ২০১১-র উপনির্বাচনে তাঁর জয়ের ব্যবধান ছিল ৫৪ হাজার ২১৩। উল্লেখ্য ২০২১-এর বিধানসভা ভোটে নন্দীগ্রাম থেকে প্রতিদ্বন্দ্বি করেছিলেন মমতা। সেই নির্বাচনে তিনি পরাজিত হয়েছিলেন। যদিও তিনি ভোট কারচুপির অভিযোগে হাইকোর্টে মামলা করেছেন।

স্পন্সরেড আর্টিকেলঃ