১৪ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ২৯শে নভেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ, সোমবার, সকাল ৮:৫১

‘দাঙ্গা লাগানোর উস্কানি দিচ্ছে’

সংবাদচর্চা রিপোর্ট:

হিন্দুদের মধ্যে ডিভিশন করবেন না। দেশ যখন অস্থির, যারা বাংলাদেশে আগুন লাগানোর চেষ্টা করছে ,মানুষ পুড়িয়ে হত্যা করছে। তখন শহীদ মিনারের মতো পবিত্র জায়গায় দাঁড়িয়ে যারা মিথ্যাচার করে আমি মনেকরি তারাই এই সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা লাগানোর জন্য উস্কানি দিচ্ছে। নারায়ণগঞ্জে বিগত একবছর যাবত অত্যন্ত সু পরিকল্পিতভাবে চক্রন্ত করা হচ্ছে। আমি তাদেরকে সাবধান করতে চাই। এখানে আমরা ভাই-বোন সকলে। এক ব্যক্তি নেতৃত্ব দেওয়ার জন্য বলে আইভীকে ভোট দিবেন না।

শনিবার ( ২৩ অক্টোবর) সকালে নারায়ণগঞ্জ শহরে সম্প্রীতি সমাবেশে মেয়র সেলিনা হায়াত আইভী কারো নাম উল্লেখ্য না করে মহানগর আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এড. খোকন সাহাকে উদ্দেশ করে এসব কথা বলেন। এর আগে গত ১৯ অক্টোবর চাষাঢ়া কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারে মেয়র আইভীকে উদ্দেশ করে খোকন সাহা বলেন, যারা মসজিদ ও মন্দিরের জায়গা খান তারাই কিন্তু সাম্প্রদায়িক শক্তি। আর সেই গোষ্ঠী আমাদের দলে ঘাপটি মেরে বসে আছে, তাদের কাছ থেকে আপনাদের সচেতন থাকতে হবে। যারা সংখ্যালঘুর সম্পত্তি, দেবোত্তর সম্পত্তি খেয়েছে এবং মসজিদের জায়গা দখল করেছে তাদেরকে আপনারা নির্বাচিত করবেন না। নির্বাচন না করার জন্য অনুরোধ জানাচ্ছি।

তিনি গর্জন দিয়ে বলেন, চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিলাম, যদি আপনাদের সাহস থাকে তাহলে কোথাও একটা ঘটনা ঘটানোর চেষ্টা করেন। আপনাদের হাত কেটে বাংলাদেশ থেকে বিতাড়িত করবো। নারায়ণগঞ্জ সম্প্রীতির শহর। আমরা হিন্দু-মুসলমানসহ সব ধর্মের লোক একসাথে বসবাস করি। আমরা পূজা, ঈদ সহ সকল ধর্মীয় উৎসব একত্রে পালন করি। এ সম্প্রীতিতে শকুনরা আমাদের মধ্যে ভেদাভেদ তৈরি করার জন্যে বারবার চেষ্টা করছে। শকুনদের কাছ থেকে সাবধান থাকবেন।

নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ডাক্তার সেলিনা হায়াত আইভী বলেন , নারায়ণগঞ্জে আমরা সবাই এক সাথে থাকব , খেলবো। যারা জাতীয় স্বার্থকে বাদ দিয়ে ব্যক্তি আইভীকে নিয়ে রাজনীতি করে তাদেরকে ধিক্কার জানাই।

স্পন্সরেড আর্টিকেলঃ